Mir cement
logo
  • ঢাকা রোববার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ২ কার্তিক ১৪২৮

নানা বাড়িতে বেড়াতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার কিশোরী

নানা বাড়িতে বেড়াতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার কিশোরী
ফাইল ছবি

কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরীতে নানা বাড়িতে বেড়াতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার হয়েছে এক কিশোরী। বুধবার ভোরে নানা বাড়ির সামনে একটি ফাঁকা জায়গা থেকে রক্তাক্ত ও অজ্ঞান অবস্থায় তাকে উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে নাগেশ্বরী উপজেলার রায়গঞ্জ ইউনিয়নের রতনপুর বোর্ডের বাজার এলাকায়।

ধর্ষণের শিকার কিশোরীর নানা জানান, পার্শ্ববর্তী উপজেলা ভুরুঙ্গামারীর গছিডাঙ্গা দীপের হাট থেকে তার নাতনী ওই কিশোরী (১৬) মঙ্গলবার (১৭ আগস্ট) তার বাড়ি রতনপুর বোর্ডের বাজার এলাকায় বেড়াতে আসে। রাতের খাওয়া শেষে সে তাদের সাথে ঘুমায়। রাত ২ টার দিকে তারা টের পেয়ে দেখেন সে বিছানায় নেই। তারপর তারা খুঁজতে বের হন। এক পর্যায়ে বুধবার ভোরে বাড়ির সামনে পুকুরের ধারে একটি ফাঁকা জায়গায় তাকে খুঁজে পায় তারা। সেখানে রক্তাক্ত অবস্থায় অজ্ঞান হয়ে পড়ে ছিল ওই কিশোরী। পরে সেখান থেকে তাকে উদ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হয়।

জ্ঞান ফিরলে কিশোরী জানায়, রায়গঞ্জ ইউনিয়নের রতনপুর গাছীরখামার এলাকার আব্দুস ছালামের ছেলে আল-আমীন (২৭) তাকে ধর্ষণ করে ফেলে রেখে পালিয়ে গেছে। পরে পরিবারের লোকজন সকালে তাকে নাগেশ্বরী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটলে সেখান থেকে তাকে কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানেই চিকিৎসাধীন রয়েছে ওই কিশোরী।

তবে ওই কিশোরীর সাথে অভিযুক্ত আল-আমীনের পূর্ব পরিচয় ছিলো বলে জানিয়েছেন কিশোরীর পরিবার।

নাগেশ্বরী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নবিউল হাসান আরটিভি নিউজকে জানান, বুধবার বিকাল পর্যন্ত এ বিষয়ে কেউ থানায় অভিযোগ দেয়নি। তবে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। ধর্ষণের শিকার কিশোরী কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি আছে। সে এখন সুস্থ আছে। তিনি আরও জানান, লিখিত অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এসজে/

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS