Mir cement
logo
  • ঢাকা বৃহস্পতিবার, ১৩ মে ২০২১, ৩০ বৈশাখ ১৪২৮

ফসলি জমিতে পুকুর খনন বন্ধে কঠোর অবস্থানে প্রশাসন

ফসলি জমিতে পুকুর খনন বন্ধে কঠোর অবস্থানে প্রশাসন
ফসলি জমিতে পুকুর খনন বন্ধে কঠোর অবস্থানে প্রশাসন

নাটোরের কৃষি জমিতে পুকুর খনন বন্ধ করার পরও হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে বড়াইগ্রাম উপজেলার জোয়াড়ী, নগর ও জোনাইল ইউনিয়নের বিভিন্ন বিলে অবাধে চলছে পুকুর খনন। বড়াইগ্রাম উপজেলার নগর ইউনিয়নে আটাই বিলে তিন ফসলি জমিতে পুকুর খননের দায়ে একজনকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে উপজেলা প্রশাসন। এছাড়াও উপজেলার বনপাড়া পৌরসভার কালিকাপুর ইটিকড়া বিলে তিন ফসলি জমিতে পুকুর খনন বন্ধ করে দিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার জাহাঙ্গীর আলম।

বুধবার (২১ এপ্রিল) সরিজমিনে গিয়ে এ সিদ্ধান্ত নেন বড়াইগ্রাম উপজেলা নির্বাহী অফিসার।

ইটিকড়া বিলে তিন ফসলি জমিতে রাতের আঁধারে এক্সকেভেটর নিয়ে পুকুর খননের চেষ্টা করা হচ্ছে। এখানে পুকুর খনন হলে পানি নিষ্কাশনের পথ বন্ধ হয়ে শতশত বিঘা জমিতে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হবে। এলাকাবাসীর এমন অভিযোগের ভিত্তিতে বড়াইগ্রাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সরেজমিনে গিয়ে পুকুর খনন বন্ধ করেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার জাহাঙ্গীর আলম বলেন, বড়াইগ্রামে তিন ফসলি জমিতে পুকুর খনন নিষেধ রয়েছে। তাই যেখানেই পুকুর খননের খবর পাচ্ছি অভিযান চালিয়ে বন্ধ করছি।

এসআর/

RTV Drama
RTVPLUS