Mir cement
logo
  • ঢাকা রোববার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৪ আশ্বিন ১৪২৮

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ

  ০১ আগস্ট ২০২১, ১৪:৩১
আপডেট : ০১ আগস্ট ২০২১, ১৫:১৩

করোনায় মৃ’তদের সৎকারে এগিয়ে আসেন সাত এলেম

সাত এলেম

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলায় করোনায় মৃতদের জানাজা ও সৎকার করার কাজে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন সাতজন এলেম। যখন পরিবার-স্বজনরাও মরদেহ ফেলে চলে যায় ঠিক তখনই তাদের দাফনকার্য করার জন্য এগিয়ে আসেন তারা।

জানা গেছে, কালীগঞ্জ শহরের মাও. রুহুল আমীন, মাও. আতাউর রহমান, মাও. ইয়াছিন আলী, মাও. ফারুক নোমানী, হাফেজ হেদায়েত উল্লাহ, হাফেজ হাবিবুর রহমান ও হাফেজ আসাদুজ্জামান মিলে সাত সদস্যের টিম গঠন করে। এরপর তারা আশপাশের এলাকায় করোনায় মৃত ব্যক্তিদের জানাজা ও দাফনকার্য সম্পন্ন করার কাজ শুরু করেন।

স্থানীয়রা জানায়, করোনা আক্রান্ত ব্যক্তিকে হাসপাতালে ভর্তির ক্ষেত্রে সহযোগিতা ও মৃত ব্যক্তিদের নিজ উদ্যোগে দাফনকার্য সম্পন্ন করেন। এছাড়াও উপজেলার হিন্দু ও খ্রিস্টান ধর্মের লোক করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেলে তাদেরও সৎকার করার জন্য কাজ করেন ওই সাত এলেম।

কালীগঞ্জ শহরের আড়পাড়া হিন্দু পরিবারের ছেলে বিমল মল্লিক করোনায় মারা গেলে তার সৎকার করে এলাকায় বেশ সুনাম অর্জন করেন সাত এলেম।

মাও. রুহুল আমীন বলেন, করোনায় মারা যাওয়া ব্যক্তিকে পরিবার নিতে চায় না। এ সময় আমরা শরীয়াহ মোতাবেক জানাজা পড়িয়ে দাফনকার্য সম্পন্ন করে থাকি। কোনো সহায়তা ছাড়া এ কাজ করে থাকি আমরা।

মাও. ফারুক নোমানী বলেন, আমরা করোনা ও উপসর্গে মারা যাওয়া ২৩ জনকে দাফন করেছি। ঝিনাইদহ জেলা প্রশাসকের সহযোগিতায় আমরা ইসলামিক ফাউন্ডেশন থেকে প্রশিক্ষণ নিয়েছি।

এসআর/

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS