Mir cement
logo
  • ঢাকা বৃহস্পতিবার, ০৫ আগস্ট ২০২১, ২১ শ্রাবণ ১৪২৮

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ

  ১৮ জুন ২০২১, ২২:১৬

ক্লিনিকেই বিয়ে করলেন রোগী

ক্লিনিকেই বিয়ে করলেন রোগী

বিয়ে হবে বাড়িতে না হয় কমিউনিটি সেন্টারে। স্বাভাবিক নিয়মে এমনটাই ঘটার কথা। কিন্তু তা যদি হয় হাসপাতালের কেবিনে কোন অসুস্থ রোগীর সাথে তাহলে কেমন হবে একবার ভাবুনতো? এমনি ব্যতিক্রমী এক বিয়ে করে এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছেন এক রোগী।

ঘটনাটি ঘটে চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গায় হাসপাতালের কেবিনে। ১৭ জুন বৃহস্পতিবার মধ্য রাতে হাসপাতালের রোগী বর হুসাইন আহমেদ (২৩) বিয়ে করেন কনে তাসফিয়া সুলতানা মেঘাকে (১৯)। বিয়ে এবং বাসর সবই সম্পন্ন হয় হাসপাতালের কেবিনে। এ ঘটনা এখন এলাকাবাসীর মুখে মুখে।

নববিবাহিত বর-কনেকে একনজর দেখতে ক্লিনিকে ভীড় করেন অনেকে। এতে বর কনে দু’জনেই খুব খুশি।

স্থানীয়রা জানায়, কয়েকদিন আগে পাশের জেলা ঝিনাইদহে একটি সড়ক দুর্ঘটনায় আলমডাঙ্গার চকপাড়া গ্রামের আব্দুস সোবহানের ছেলে হুসাইন আহমেদের ডান পা ভেঙে যায়। তাকে উদ্ধার করে এনে ভর্তি করা হয় আলমডাঙ্গার একটি ক্লিনিকে। হুসাইনের অসুস্থতার খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার ক্লিনিকে ছুঁটে আসেন তার প্রেমিকা ঝিনাইদহের লেবুতলা গ্রামের মেয়ে তাসফিয়া সুলতানা মেঘা।

বরের পিতা আব্দুস সোবহান বলেন, কনের পরিবার আমাদের পূর্ব পরিচিত। যে কারণে মেয়েটি পরিবারের অজান্তে ক্লিনিকে চলে আসায় তার পিতার সাথে যোগাযোগ করা হয়। এতে মেয়ের পিতা মনক্ষুন্ন হয়ে মেয়েকে ঘরে নেবে না বলে জানিয়ে দেন। এ ঘটনা জানার পর মেয়েটিও বাড়ি না ফেরার জেদ করে। বাধ্য হয়ে আমরা কাজী ডেকে বিয়ের ব্যবস্থা করি।

ক্লিনিক মালিক মুনজুন আলী বলেন, বরের পিতা আমার বাল্যবন্ধু। বন্ধুর অনুরোধেই ক্লিনিকে বিয়ের ব্যবস্থা করা হয়। তবে বর-কনে দু’জনেই প্রাপ্তবয়স্ক হওয়ায় বিষয়টি সকলে স্বাভাবিক ভাবেই দেখছে।

এমএন/এফএ

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS