logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৫ আশ্বিন ১৪২৬

উত্তরার রাস্তায় ফের বিক্ষোভে পোশাক শ্রমিকরা

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ০৮ জানুয়ারি ২০১৯, ১২:৫২ | আপডেট : ০৮ জানুয়ারি ২০১৯, ১৩:০৩
রাজধানীতে ন্যূনতম মজুরি বাস্তবায়নসহ বিভিন্ন দাবিতে টানা তৃতীয়দিনের মতো রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ করছেন পোশাক শ্রমিকরা। বেলা পৌনে ১২টার দিকে উত্তরার আবদুল্লাহপুর এলাকায় গার্মেন্ট শ্রমিকরা ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধের চেষ্টা করলে পুলিশ টিয়ারশেল ছুড়ে তাদের সরিয়ে দেয়। পরে আবার তারা রাস্তায় এসে জড়ো হতে থাকে।

অপরদিকে মিরপুরের কালশী এলাকায় শ্রমিকরা রাস্তায় অবস্থান নিলে পুলিশের সঙ্গে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এ খবর পেয়ে মিরপুরের পল্লবী ও বেগম রোকেয়া সরণির বিভিন্ন গার্মেন্ট শ্রমিকরা রাস্তায় নামে।

পুলিশের কাফরুল জোনের সহকারী কমিশনার সৈয়দ মামুন মোস্তফা জানান, ‘২২তলা গার্মেন্টসের সামনে তাদের বিক্ষোভের কারণে কালশী এলাকায় রাস্তার একদিকে যান চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। রোকেয়া সরণি ও পল্লবী এলাকাতেও বিভিন্ন গার্মেন্টের কর্মীরা বিচ্ছিন্নভাবে রাস্তায় এসে বিক্ষোভ করছে। ফলে যান চলাচল বিঘ্নিত হচ্ছে। তবে আমরা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করছি।’

সরকার ঘোষিত ন্যূনতম মজুরি বৃদ্ধি ও বাস্তবায়নের দাবিতে গত রোববার থেকে প্রতিদিনই ঢাকার গুরুত্বপূর্ণ বিমানবন্দর সড়কে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করছেন পোশাক শ্রমিকরা।

শ্রমিকদের অভিযোগ, সরকার তাদের জন্য যে নতুন বেতন কাঠামো নির্ধারণ করে দিয়েছে, মালিকপক্ষ সে অনুযায়ী বেতন দিচ্ছে না। বরং তাদের নানাভাবে অন্যায়-অবিচারের শিকার হতে হচ্ছে।

বিমানবন্দর জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার মো. মিজানুর রহমান জানান, ‘মঙ্গলবার সকাল ৯টার পর থেকে উত্তরখান ও দক্ষিণখান এলাকার বিভিন্ন গার্মেন্টের শ্রমিকরা জড়ো হয়ে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে আসার চেষ্টা করে। তারা বিভিন্ন গার্মেন্টে গিয়ে শ্রমিকদের বের করে আনার চেষ্টা করছে। না এলে কারখানায় ভাংচুর করছে। পুলিশ সতর্ক অবস্থায় থেকে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখার চেষ্টা করছে।’

প্রসঙ্গত, শ্রমিকদের এই বিক্ষোভের কারণে গত রোববার সকাল ৯টা থেকে পাঁচ ঘণ্টা বিমানবন্দর থেকে উত্তরা-আজমপুর পর্যন্ত সড়কে যান চলাচল বন্ধ থাকে। সোমবারও তারা পাঁচ ঘণ্টা গুরুত্বপূর্ণ ওই সড়ক আটকে বিক্ষোভ করে। এমনকি বিমানবন্দরের সামনের রাস্তায় এনা পরিবহনের একটি বাস ভাংচুরের পর তাতে আগুন দেয় তারা।

আরো পড়ুন:

পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়