Mir cement
logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১, ১২ শ্রাবণ ১৪২৮

টাঙ্গাইল (দক্ষিণ) প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ

  ২০ জুলাই ২০২১, ১৬:১৩
আপডেট : ২০ জুলাই ২০২১, ১৬:২৪

ধ'র্ষণের অভিযোগের পর কলেজছাত্রীকে বিয়ে করলেন যুবক

প্রতীকী ছবি

টাঙ্গাইলের সখীপুরে বিয়ের কথা বলে কলেজছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ থানায় জানানোর পর বাড়ি ছেড়ে পালান অভিযুক্ত যুবক দীপক চন্দ্র সরকার (২৫)। চার দিন পর বাড়ি ফিরে থানা-পুলিশের হস্তক্ষেপে সোমবার (১৯ জুলাই) তিনি ওই কলেজছাত্রীকে বিয়ে করেন বলে সখীপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ওমর ফারুক জানিয়েছেন। দীপক টাঙ্গাইল শহরের একটি ক্লিনিকে চাকরি করেন।

পুলিশ জানায়, ছয়-সাত মাস আগে দীপকের সঙ্গে কলেজছাত্রীর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। গত বুধবার রাতে মেয়েটির বাবা ও এলাকাবাসী দীপকের বাড়িতে মেয়েটিকে খুঁজে পেলে দুজনের মধ্যে সম্পর্কের বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হয়। গত শুক্রবার দুই পক্ষের সম্মতিতে বিয়ের দিনক্ষণ ঠিক করতে বৈঠকের আয়োজন করা হয়।

এ খবরে দীপক বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যান। এরপর গত রোববার মেয়েটি দীপকের নামে সখীপুর থানায় একটি অভিযোগ করেন। পরে থানা-পুলিশের হস্তক্ষেপে দীপক বাড়ি ফিরে সোমবার (১৯ জুরাই) রাতে ওই ছাত্রীকে বিয়ে করেন।

হাতীবান্ধা ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য শুকলাল চন্দ্র সরকার বলেন, গতকাল দীপক বাড়ি ফিরে আসায় ও বিয়েতে সম্মত থাকায় রাতেই তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়।

সখীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একে সাইদুল হক ভুইঁয়া বলেন, উভয়ের সম্মতিতেই তারা পাঁচ মাস ধরে মেলামেশা করছেন। ধর্ষণের মামলা হলে উভয়েরই ক্ষতি হতো। দীপককে বিয়ের জন্য চাপ দিলে তিনি সম্মত হন। পরে সোমবার রাতে বিয়ে হয়।

এসআর/

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS