Mir cement
logo
  • ঢাকা বুধবার, ১৯ মে ২০২১, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮

মাদারীপুর প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ

  ২৯ এপ্রিল ২০২১, ১৬:২৭
আপডেট : ২৯ এপ্রিল ২০২১, ১৬:৩১

ত্রিভুজ প্রেমের দ্বন্দ্বে অর্ধশত ঘরবাড়ি-দোকানে ভাঙচুর ও লুটপাট

ত্রিভুজ প্রেমের দ্বন্দ্বে অর্ধশত ঘরবাড়ি-দোকানে ভাঙচুর ও লুটপাট
ত্রিভুজ প্রেমের দ্বন্দ্বে অর্ধশত ঘরবাড়ি-দোকানে ভাঙচুর ও লুটপাট

ত্রিভুজ প্রেমের সম্পর্কের জেরে দুই পক্ষের সংঘর্ষে অর্ধশত ঘরবাড়ি-দোকানে ভাঙচুর ও লুটপাটের অভিযোগ উঠেছে মাদারীপুরে। ঘটনাস্থল থেকে ৪ জনকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো মাদারীপুর পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডের থানতলী এলাকার রব মৃধার ছেলে সোহাগ মৃধা, সাঈদ মোল্লার ছেলে শাকিল মোল্লা, ফারুক আহম্মেদের ছেলে আব্দুলাহ আহম্মেদ ও এনায়েত শেখের ছেলে রাজীব শেখ।

বুধবার (২৮ এপ্রিল) রাত ৯টার দিকে ঘটেছে ঘটনাটি। এদিকে এ ঘটনায় অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছেন এলাকাবাসী।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, মাদারীপুর পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডের পাকদী এলাকার আরিফ খলিফা ও শহিদ খলিফার সঙ্গে একই এলাকার রূপালী আক্তারের প্রেমের সম্পর্ক তৈরি হয়। বিষয়টি প্রকাশ্যে আসলে সপ্তাহখানেক আগে আরিফ ও শহিদের মাঝে বিরোধ হয়। এই জেরে বুধবার রাত ৯টার দিকে আরিফ ও শহিদের সঙ্গে কথা কাটাকাটির পর দুই পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়ায়। অর্ধশত ঘরবাড়ি-দোকানে ভাঙচুর ও লুটপাট করা হয় এই সময়। এতে অন্তত ৬ জন আহত হয়েছে। পরে পুলিশ ফাঁকাগুলি ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। ফের সংঘর্ষের ঘটনায় এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

কয়েকজন এলাকাবাসী বলেন, হঠাৎ রাতে শত শত মানুষ দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে ঘরবাড়ি ও দোকানে লুটপাট করে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। দোষীদের আইনের আওতায় আনা না হলে এমন ঘটনার পুনরাবৃত্তি হবে।

মাদারীপুর সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. কামরুল ইসলাম মিঞা জানান, সংঘর্ষের ঘটনায় চরমুগরিয়া পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক হারুণ অর রশীদ বাদী হয়ে সদর মডেল থানায় ৪৪ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরও ১২০ জনের নামে মামলা করেছেন। এছাড়া ৪ জনকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

এসআর/

RTV Drama
RTVPLUS