logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ১৬ এপ্রিল ২০২১, ৩ বৈশাখ ১৪২৮

হত্যা মামলার আসামিদের মোটরসাইকেলে নিয়ে বাদীর বাড়ি এসআই!

হত্যা মামলার আসামিদের মোটরসাইকেলে নিয়ে বাদীর বাড়ি এসআই!
হত্যা মামলার আসামিদের মোটরসাইকেলে নিয়ে বাদীর বাড়ি এসআই!

২০২০ সালের ১ এপ্রিল তরুণ ব্যবসায়ী শরিফ মাতব্বরকে কুপিয়ে হত্যা করে এলাকার কিশোর গ্যাং শাকিল-লালন গ্রুপ। মাদক ব্যবসা ও চাঁদাবাজির প্রতিবাদ করায় নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার পশ্চিম দেওভোগ আদর্শ নগর এলাকায় হত্যা করা হয় তাকে। মঙ্গলবার (৬ এপ্রিল) সকালে হত্যা মামলার দুই নং আসামি লালন ও সাত নং আসামি নুর মোহাম্মদকে নিজ মোটর সাইকেলে বসিয়ে নিয়ে মামলার বাদীর বাড়িতে যান। পরে জানান তার মোটরসাইকেলের পেছনে থাকা ব্যক্তিরা যে আসামি তা জানতেন না তিনি।

বিকেলে নিহত শরিফের বাবা নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবে এসে অভিযোগ করেন, বেলা একটার দিকে সাদা পোশাকে এসআই নেওয়াজ মিয়া তার মোটর সাইকেলে দুই আসামিকে নিয়ে তার বাড়ির সামনে আসেন। তাকে ডেকে বের করেন। মানুষজন নামাজ পড়তে যাওয়ায় এলাকা কিছুটা নিরব ছিল। নেওয়াজ মিয়া উত্তেজিত হয়ে শরিফের বাবাকে বলেন, আপনার ছেলে মারা গেছে। এটা আইনে যা হওয়ার হবে। আপনি তাদের হুমকি দিচ্ছেন কেন? হত্যা মামলার দুই আসামিকে দেখিয়ে বলেন, এদের কিছু হলে এর দায়িত্ব আপনাকেই নিতে হবে। আপনাকে ছেড়ে দিব না।

এসময় শরিফের বাবা বলেন, আপনি হত্যা মামলার আসামিদের সঙ্গে করে এসেছেন কেন? এরা কয়েকদিন আগেও আমাকে মামলা তুলে নিতে চাপ দিয়েছে অন্যথায় হত্যার হুমকি দিয়েছে। তাদের তর্কাতর্কির এক পর্যায়ে নামাজ শেষ হয়ে গেলে মসজিদ থেকে মুসল্লিরা জড়ো হয়ে সাদা পোশাকে থাকা এসআই নেওয়াজের পরিচয় জানতে চাইলে তিনি তাদের ভিজিটিং কার্ড বের করে দেন। এসময় এলাকাবাসী তার বক্তব্যের প্রতিবাদ জানালে অবস্থা বেগতিক দেখে তিনি দুই আসামিকে রিকশায় তুলে নিরাপদে সরে যেতে সহায়তা করেন।

এ ব্যাপারে এসআই নেওয়াজের মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে জানান, যাদের তিনি সঙ্গে করে নিয়েছিলেন তারা হত্যা মামলার আসামি তা জানতেন না তিনি। তারা থানায় একটি অভিযোগ করেছে। সে অভিযোগের তদন্ত করতে তিনি ঐ এলাকায় গিয়েছিলেন। তিনি থানায় নতুন, এলাকা চিনেন না। তাই তাদের সঙ্গে করে নিয়েছিলেন।

এসআর/

RTV Drama
RTVPLUS