Mir cement
logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২ আশ্বিন ১৪২৮

আসামি না হয়েও জেলখাটা সেই মিনু সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত

ফাইল ছবি

চট্টগ্রামে একটি হত্যা মামলায় আসামি না হয়েও অন্যের হয়ে তিন বছর কারাভোগ শেষে সম্প্রতি মুক্তি পাওয়া মিনু আক্তার সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন। গত ২৮ জুন রাতে নগরের বায়েজিদ সংযোগ সড়কে নিহত হলেও পরিচয় শনাক্ত হওয়ার জন্য ময়নাতদন্ত শেষে তার দাফন করে আঞ্জুমানে মফিদুল ইসলাম।

তদন্ত শেষে জানা যায়, দুর্ঘটনায় নিহত ব্যক্তি আলোচিত সেই মিনু আক্তার। রোববার (৪ জুলাই) বায়েজিদ বোস্তামী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ কামরুজ্জামান গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেন বিষয়টি।

তিনি বলেন, গত ২৮ জুন রাতে বায়েজিদ সংযোগ সড়ক থেকে দুর্ঘটনায় নিহত এক নারীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। পরে তার পরিচয় শনাক্ত করা সম্ভব না হওয়ায় অজ্ঞাত হিসেবে মরদেহ দাফন করে আঞ্জুমান মফিদুল ইসলাম। শনিবার বায়েজিদ থানার একটি টিম সীতাকুণ্ড এলাকার লোকজনকে ছবি দেখিয়ে মিনুর পরিচয় শনাক্ত করে।

গত ১৬ জুন প্রায় তিন বছর সাজা ভোগ করার পর চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে মুক্তি পান তিনি। সেদিন দুপুরের দিকে চতুর্থ অতিরিক্ত চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ শরীফুল আলম ভূঞা মিনুকে মুক্তির নির্দেশ দেন।

চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারের কারাধ্যক্ষ দেওয়ান মোহাম্মদ তারিকুল ইসলাম গণমাধ্যমকে তখন জানিয়েছিল, আদালতের আদেশে যাচাই-বাছাইয়ের পর মুক্তি দেয়া হয় মিনুকে।

আদালত সূত্র তখন জানা যায়, গত ২৩ মার্চ মিনুকে আক্তারকে চট্টগ্রাম আদালতে তোলা হয়। প্রকৃত আসামি কুলসুমা আক্তারের কারা রেজিস্ট্রারে থাকা ছবি এসময় চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারের জ্যেষ্ঠ তত্ত্বাবধায়ক মো. শফিকুল ইসলাম খান আদালতে উপস্থাপন করা হয়। দুজনের ছবির মধ্যে পার্থক্য পাওয়া যায়।

চট্টগ্রামের জ্যেষ্ঠ আইনজীবী গোলাম মাওলা মুরাদ নিরপরাধ মিনুকে সকল আইনি সহায়তা প্রদান করেন।

এসআর/

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS