Mir cement
logo
  • ঢাকা শনিবার, ২৪ জুলাই ২০২১, ৯ শ্রাবণ ১৪২৮

বান্দরবান প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ

  ১৬ জুন ২০২১, ২১:৪৯
আপডেট : ১৬ জুন ২০২১, ২৩:৫৬

আলীকদমে ডায়রিয়া আক্রান্ত রোগীদের পাশে সেনাবাহিনী

ডায়রিয়া আক্রান্ত রোগীদের পাশে সেনাবাহিনী

বান্দরবানের আলীকদমে ডায়রিয়ায় মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১১ জনে। সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধানে বিমানবাহিনীর হেলিকপ্টারে করে বান্দরবানের আলীকদমের দুর্গম কুরুকপাতা থেকে ৩ জন ডায়রিয়া আক্রান্ত রোগী নিয়ে আসা হলো বান্দরবান সদর হাসপাতালে। মেনলে ম্রো (৫), আং চং ম্রো (৭০) ও রেপং ম্রো (১২)। তারা সবাই আলীকদমের দুর্গম কুরুকপাতা ইউনিয়নের মাংরুম পাড়ার বাসিন্দা।

বুধবার (১৬ জুন) দুপুরে তাদের বান্দরবান সেনানিবাস এলাকার হেলিপ্যাডে রোগীদের নামানোর পর অ্যাম্বুলেন্স করে বান্দরবান সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেনাবাহিনীর সূত্রে জানা যায়, গত কয়েকদিন ধরে বান্দরবানের আলীকদম উপজেলার কুরতকপাতা ইউনিয়নের বিভিন্ন দুর্গম এলাকায় ডায়রিয়ার প্রকোপ দেখা দিয়েছে। এতে আক্রান্ত হয়ে বেশ কয়েকজনের মৃত্যু হয়েছে। পুরো কুরুকপাতা ইউনিয়নে ডায়রিয়ায় প্রায় শতাধিক নারী-পুরুষ আক্রান্ত হওয়ায় গুরুতর এক নারী ও ২ শিশুকে জরুরি ভিত্তিতে হেলিকপ্টারে করে আলীকদমের করুকপাতা থেকে বান্দরবান সদরে আনা হয়েছে।

সেনাবাহিনী জানায়, পরিস্থিতি মোকাবেলায় বিপুল সংখ্যক ওষুধ, পানি বিশুদ্ধিকরণ ট্যাবলেট, খাবার স্যালাইন, শুকনো খাবার, বিশুদ্ধ পানি, দুর্গত এলাকায় পাঠানো হয়েছে এবং ডায়রিয়া আক্রান্তদের চিকিৎসা সহায়তা অব্যাহত রয়েছে। আলীকদমের কুরুকপাতা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ক্রাতং ম্রো জানান, ডায়রিয়া আক্রান্ত হয়ে গত এক সপ্তাহে ৮ জন মারা গেছে আর শতাধিক ব্যক্তি আক্রান্ত হয়েছে।

বান্দরবান সেনা রিজিয়নের ৭ ফিল্ড অ্যাম্বুলেন্সের ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক মেজর মো. সাইফুল ইসলাম (সাইফ) জানান, এখন পর্যন্ত আলীকদমের দুর্গম কুরুক পাতায় ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। হেলিকপ্টারে করে উন্নত চিকিৎসার জন্য ডায়রিয়ায় আক্রান্ত ৩ মুমূর্ষু রোগীকে বান্দরবান নিয়ে আসা হয়েছে। স্বাস্থ্য বিভাগের সঙ্গে কথা বলে রোগীদের যতটুকু সহায়তা করা প্রয়োজন তার সবটুকুই করবে সেনাবাহিনী। বর্তমানে ওই এলাকায় আরও অন্তত ৫০ জন আক্রান্ত রোগী রয়েছে।

এসআর/

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS