Mir cement
logo
  • ঢাকা বুধবার, ২৮ জুলাই ২০২১, ১৩ শ্রাবণ ১৪২৮

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ

  ১৩ জুন ২০২১, ১৮:৩৭
আপডেট : ১৩ জুন ২০২১, ১৮:৫৮

ভুল চিকিৎসায় প্রাণ গেলো নবজাতকের!

সুনামগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল

সুনামগঞ্জ পৌর শহরের বেসরকারি হাসপাতাল জেনারেল হাসপাতালে ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় এক নবজাতকের মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন স্বজনরা। রোববার (১৩ জুন) সকালে শহরের নতুনপাড়ার লিটন দেব’র নবজাতক ছেলে সন্তান হাসপাতালের ২০৩ নম্বর কেবিনে মারা যায়। এ ঘটনায় হাসপাতালের শিশু চিকিৎসক এনামুল হক খানের বিরুদ্ধে ভুল চিকিৎসায় মৃত্যুর অভিযোগ জানিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন নবজাতকের স্বজনরা।

জেনারেল হাসপাতালের ম্যানেজার প্রবোধ কুমার রায় জানান, গত বুধবার (৯ জুন) লিটন দেব তার সন্তান সম্ভাব্য স্ত্রী যুথি দেব’কে ভর্তি করান। রাতে ছেলে সন্তানের জন্ম হয়। এরপর বৃহস্পতিবার (১০ জুন) জেনারেল হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের নির্দেশে তারা হাসপাতালের অতিথি চিকিৎসক এনামুল হক খানকে দেখান। তিনি শিশুকে ৫০০ মিলিগ্রাম উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন এন্টিবায়োটিক ইনজেকশন দেন। পরদিন শিশুর সমস্যা দেখা দিলে তারা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে গিয়ে শিশুটি দেখিয়ে আনেন। এসময় বাচ্চাটি সুস্থ সবল আখ্যায়িত করে নতুন করে ব্যবস্থাপত্র দেননি। রোববার (১৩ জুন) সকালে শিশুটি মারা গেলে স্বজনরা কান্নায় ভেঙে পড়েন। এসময় ডাক্তার এনামুল হক খান ও জেনারেল হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অবহেলায় শিশুর মৃত্যুর অভিযোগ করেন নবজাতকের পরিবার।

মৃত নবজাতকের কাকা রিপন কুমার দেব বলেন, জন্মের পর ভাতিজা স্বাভাবিক ছিল। সে কান্নাকাটি করেছে, পায়খানা-প্রস্রাব করেছে। কিন্তু হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের চাপে শিশু ডাক্তার এনামুল হক খানকে দেখানোর পর তিনি উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন এন্টিবায়োটিক দেন। ভুল চিকিৎসার জন্য সকালে আমার ভাতিজা মারা গেছে।

জেনারেল হাসপাতালের ম্যানেজার প্রবোধ কুমার রায় গণমাধ্যমকে বলেছেন, লিটন দেবের শিশুর স্বাভাবিক চিকিৎসা দিয়েছেন চিকিৎসক এনামুল হক খান। এখন কি কারণে মারা গেছে আমরা বলতে পারব না।

অভিযুক্ত ডাক্তার এনামুল হক খানের সঙ্গে কথা বলতে তাকে ফোন করলে ফোন রিসিভ করেননি তিনি।

এসআর/

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS