logo
  • ঢাকা বৃহস্পতিবার, ০৪ মার্চ ২০২১, ১৯ ফাল্গুন ১৪২৭

ইয়াবা ফাঁসানোর চেষ্টায় যেভাবে রেহাই পেলেন ব্যবসায়ী

ইয়াবা ফাঁসানোর চেষ্টায় যেভাবে রেহাই পেলেন ব্যবসায়ী

পূর্ব পরিকল্পিতভাবে একজন ব্যবসায়ীকে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসানোর চেষ্টা করা হয়। তবে সিসি ক্যামেরা থাকায় রেহাই পেয়ে জান ব্যবসায়ী। এ ঘটনায় পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করেছেন চট্টগ্রাম পুলিশ। মূল পরিকল্পনাকারীর সন্ধান এখনও পায়নি অভিযান পরিচালনাকারী নগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। ওই ব্যবসায়ীরা ধারণা, অংশীদার ব্যবসায় বিরোধের জেরে তাকে ফাঁসানোর চেষ্টা হয়েছিল।

শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) রাতে নগরীর খুলশী থানার জাকির হোসেন সড়কে 'হেয়ার এন্ড ফেয়ার' নামে ওই ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে প্রথমে দু’জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। এরপর তাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে আরও তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন নগর গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (দক্ষিণ) শাহ মো. আব্দুর রউফ।

গ্রেপ্তার করা পাঁচজন হলেন- ইফতেখার করিম চৌধুরী (৪৮), মো. সোহেল (২৬), মো. ফয়সাল (২০), নজরুল ইসলাম (৪২) এবং জামাল হোসেন (৪১)। এদের মধ্যে ফয়সালের বাসা নগরীর হালিশহর বি-ব্লকে। বাকিদের বাসা নগরীর লালখান বাজারে।

ঘটনার শিকার মো. মান্নান শেখ নগরীর জাকির হোসেন সড়কে ওমরগণি এমইএস কলেজের সামনে 'টাক মাথায় চুল গজানোর' চিকিৎসা দেওয়া প্রতিষ্ঠান হেয়ার এন্ড ফেয়ারের মালিক। তার বাড়ি গোপালগঞ্জে। থাকেন নগরীর খুলশী এলাকায়।

ঘটনার বর্ণনা দিয়ে নগর গোয়েন্দা পুলিশের এডিসি শাহ মো. আব্দুর রউফ বলেন, শনিবার সন্ধ্যার পর সোর্সের কাছ থেকে তারা জানতে পারেন, হেয়ার এন্ড ফেয়ারে ইয়াবা ও কার্তুজ রক্ষিত আছে। খবর পেয়েই অভিযানে নামে নগর গোয়েন্দা পুলিশের বিশেষ টিম। সেখানে গিয়ে সোর্সের দেখানো মতে, গ্রাহকের বসার সোফার নিচ থেকে ২০০ পিস ইয়াবা ও চার রাউন্ড কার্তুজ উদ্ধার করে। কিন্তু সোফার নিচে ইয়াবা ও কার্তুজ দেখে তাদের মধ্যে সন্দেহ হয়।

সিসি ক্যামেরায় ধারণ হওয়া ফুটেজে দেখা যায় ঘটনার দিন বিকেলে দুজন লোক দোকানে প্রবেশ করে। একজনের মাথায় চুল নেই, আরেকজনের চুল আছে। চুলবিহীন ব্যক্তি ম্যানেজারের সঙ্গে গিয়ে চিকিৎসা সংক্রান্ত কথা বলতে থাকেন। এর ফাঁকে ফয়সাল বসে পড়েন সোফায়। তাদের কথাবার্তার একফাঁকে ফয়সাল সোফার নিচে ইয়াবা ও কার্তুজ রেখে দেয়। ফুটেজ দেখে সঙ্গে সঙ্গেই আমরা ফয়সালকে আটক করি। ফয়সাল জানায়, ৫০০ টাকার বিনিময়ে সোহেল তাকে ইয়াবাগুলো সেখানে রাখতে দিয়েছে। তখন আমরা টাইগারপাস থেকে সোহেলকে আটক করি। পরে সোহেলের দেওয়া তথ্যমতে রাতভর অভিযানে বাকিদের একের পর এক করে গ্রেপ্তার করা হয়।

এফএ

RTV Drama
RTVPLUS