কর্মচারীদের ১২ দিনের খাবার দিয়ে হোটেল বন্ধ করলেন মালিক

প্রকাশ | ২৪ মার্চ ২০২০, ২২:৩৬

পঞ্চগড় সংবাদদাতা, আরটিভি অনলাইন
কর্মচারীদের ১২ দিনের খাবার দিয়ে হোটেল বন্ধ করলেন মালিক

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে শ্রমিক-কর্মচারীদের  ১২ দিনের খাবার সরবরাহ করে হোটেল বন্ধ ঘোষণা করলেন পঞ্চগড় জেলা শহরের এক হোটেল মালিক।

আজ মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) দুপুরে নুরজাহান হোটেল অ্যান্ড রেস্টুরেন্ট ও বিরিয়ানি হাউজ নামের ওই রেস্টুরেন্টটি বন্ধ করা হয়। 

রেস্টুরেন্টের মালিক মো. হায়াতুল আলম, আলতাফ হোসেন ও মাহতাব আলী ভুট্ট জানান, শহরে রেস্টুরেন্টের তিনটি শাখাই বন্ধ করা হয়েছে। হোটেলের ৫০ কর্মচারীর প্রত্যেককে ১০ কেজি চাল, পাঁচ কেজি আলু, এক কেজি লবণ, এক কেজি ডাল ও একটি সাবান দেয়া হয়েছে।

হোটেলের কর্মচারী আমেনা বেগম বলেন, ‘করোনাভাইরাসের তানে হামার হোটেল ১২ দিনের তানে বন্ধ। খাবার পায় হামার ভালো হইল। এলা হামেরা বাড়িত থাকিমো, কুনঠে বাইর হমনি।’

মালিকপক্ষ জানান, পঞ্চগড়ে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে হোটেলের সকল শাখা ২৪ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ রাখছি। এসব শাখায় কর্মরত ৫০ জন শ্রমিককে এই সময়ের খাবার সরবরাহ করার ব্যবস্থা করা হয়েছে যাতে তাদের খাবারের সন্ধানে বের হতে না হয়।

এদিকে পঞ্চগড় জেলার পাঁচ উপজেলায় গেল ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ৩৮ জনকে হোম কোয়ারেন্টিনের আওতায় আনা হয়েছে। এ পর্যন্ত জেলায় ৬০৩ জনকে হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। এদের মধ্যে ৪১ জনকে হোম কোয়ারেন্টিন থেকে ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে। হোম কোয়ারেন্টিনে থাকা কারো শরীরে করোনার লক্ষণ পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ। 

রোববার করোনাভাইরাস আক্রান্ত সন্দেহে এক যুবককে আধুনিক সদর হাসপাতালের আইসোলেসন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে। গভীর রাতে শহরের ধাক্কামারা এলাকা থেকে পরিবারের সদস্যরা তাকে হাসপাতালে ভর্তি করে। সন্দেহজনক আক্রান্ত ওই ব্যক্তি মাদারিপুর থেকে ভায়রার বাসায় বেড়াতে এসেছিলেন।

এসএস