logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ৫ ফাল্গুন ১৪২৬

নাশকতা মামলার আসামিকে গ্রেপ্তারে পুলিশের গড়িমসি

স্টাফ রিপোর্টার (রাজশাহী), আরটিভি অনলাইন
|  ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ২১:৩৯
নাশকতা মামলার আসামিকে গ্রেপ্তারে পুলিশের গড়িমসি
এসএম ইউসা ওরফে ভোলা

রাজশাহীর চারঘাট উপজেলায় রাষ্ট্রবিরোধী কার্যক্রম ও নাশকতা মামলার চার্জশীট ভুক্ত পলাতক আসামি এসএম ইউসা ওরফে ভোলা প্রকাশ্যে চলাফেরা করলেও রহস্যজনক কারণে তাকে গ্রেপ্তার করছে না পুলিশ। দীর্ঘদিন ধরে সে আদালত ও আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে এলাকায় দাম্ভিকতার সঙ্গে  বসবাস করে আসছে। তার বিরুদ্ধে বর্তমানে চারঘাট মডেল থানা ও আরএমপি’র রাজপাড়া থানায় প্রায় এক ডজন মামলা ও জিডি রয়েছে।
 
এসএম ইউসা ওরফে ভোলা চারঘাট উপজেলার ঝিকরা গ্রামের মৃত শোয়েব উদ্দিন সরকারের ছেলে। চারঘাট মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম মামলার দীর্ঘ তদন্ত শেষে সম্প্রতি এসএম ইউসা ভোলাসহ বাকি আসামিদের নাম উল্লেখ করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেছেন।

মামলার এজাহার ও চার্জশীট সূত্রে জানা গেছে, চারঘাট মডেল থানাধীন বড়বড়িয়া গ্রামের মৃত সয়েন উদ্দিনের ছেলে  জৈনক আ. কুদ্দুসের বসতবাড়িতে জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ও রাষ্ট্রবিরোধী কর্মকান্ড করার উদ্দেশ্যে জামায়াত-বিএনপি ও এর সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা গোপন বৈঠক করছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ ওই বাড়িতে অভিযান চালায়। এ সময় বেশ কয়েকজনকে গ্রেপ্তারও করে পুলিশ। উদ্ধার করা হয় ককটেল বোমা, পেট্রোল বোমা ও প্লাস্টিকের বোতলের ভেতরে রক্ষিত পেট্রোল। বাকি আসামিরা পালিয়ে যায়। পরে গ্রেপ্তারকৃত আসামি ও পলাতক আসামিদের নাম উল্লেখ করে চারঘাট মডেল থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইন ও বিস্ফোরক আইনে মামলা দায়ের করা হয়। পরে ওই মামলায় তাদের গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে সোপর্দ করা হয়।

বর্তমানে বিশেষ ক্ষমতা আইন ও বিস্ফোরক আইনে দায়েরকৃত মামলায় বেশ কয়েকজন আসামি হাইকোর্ট থেকে জামিনে মুক্তি পেলেও এসএম ইউসা ওরফে ভোলাসহ বাকি আসামিরা পলাতক রয়েছে। পুলিশের চোখে পলাতক হলেও ভোলা অন্যান্য মামলায় রাজশাহীর বিভিন্ন আদালতে নিয়মিত হাজিরা দিয়ে থাকেন ও এলাকায় চলাফেরা করেন।

এ ব্যাপারে চারঘাট মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুমিত কুমার কুণ্ডু জানান, সম্প্রতি বিশেষ ক্ষমতা ও বিস্ফোরক আইনে দায়েরকৃত মামলার আসামি এসএম ইউসা ভোলাসহ বাকি আসামিদের নাম উল্লেখ করে আদালতে অভিযোগ পত্র দাখিল করা হয়েছে। আদালত থেকে ওয়ারেন্টের কাগজ থানায় এসে পৌঁছালে তাকে গ্রেপ্তার  করে আদালতে সোপর্দ করা হবে।

এজে

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • দেশজুড়ে এর সর্বশেষ
  • দেশজুড়ে এর পাঠক প্রিয়