logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর ২০২০, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

ভৈরব প্রতিনিধি, আরটিভি অনলাইন

  ১৬ জানুয়ারি ২০২০, ১৩:৫১
আপডেট : ১৬ জানুয়ারি ২০২০, ১৩:৫৬

গণধর্ষণের শিকার কিশোরী, মামলা নিয়ে দুই থানার ঠেলাঠেলি

ধর্ষণ কিশোরী বিচার
প্রতীকী ছবি
কিশোরগঞ্জের ভৈরবে ১৩ বছর বয়সী এক কিশোরী গণধর্ষণের শিকার হয়েছে।

গতকাল বুধবার গভীর রাতে পৌর শহরের জগন্নাথপুরে এই ঘটনা ঘটেছে।

চাঞ্চল্যকর এ ঘটনার মামলা নিয়ে বেঙ্গল ও রেলওয়ে থানায় চলছে ঠেলাঠেলি। ধর্ষিতা কিশোরীর বাড়ি সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার বোয়ালি গ্রামে।  গণধর্ষণের সত্যতা নিশ্চিত করে ভৈরব রেলওয়ে থানার ওসি ফেরদৌস আহমেদ বিশ্বাস আরটিভি অনলাইনকে বলেন, কিশোরী মেয়েটি  গতকাল রাত আটার দিকে তার খালার বাসা টঙ্গী থেকে ভৈরব বাসস্ট্যান্ডে নামে।

পরে মেয়েটি সিলেটের বাসে ওঠতে এক রিকশাওয়ালার সহযোগিতা চায়। রিকশাচালক তাকে রিকশায় তুলে। এ সময় আরেক যুবকও ওঠে। পরে মেয়েটিকে সিলেট বাসস্ট্যান্ডে পৌঁছে না দিয়ে উল্টো দিকে জগন্নাথপুরে রেল লাইনের অদূরে একটি নির্জন ঝোপে নিয়ে যায়।

ওসি আরও বলেন, পরে মেয়েটির মুখ চেপে ধরে কয়েকজন মিলে কিশোরীকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে।  পরে মেয়েটিকে অন্য জায়গায় নিয়ে যেতে চাইলে স্থানীয় এক ব্যক্তিকে দেখে পালিয়ে যায় ধর্ষকরা। 

পরে মেয়েটিকে রেলওয়ে থানায় নিয়ে আসে এক ব্যক্তি। এ সময় রাত আনুমানিক দেড়টা। পরে ধর্ষিতা মেয়েটিকে চিকিৎসার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়।

রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফেরদৌস আহমেদ বিশ্বাসের দাবি, মেয়েটির তথ্যানুযায়ী স্থানটি রেলওয়ে থানার আওতাধীন না। ফলে তাকে বেঙ্গল থানায় নিয়ে গেলে তারা মানতে নারাজ। কোনও অভিযোগ আমলে না নিয়ে ধর্ষিতা মেয়েটিকে ফেরত পাঠিয়ে দেয়া হয়। অবশেষে নিরুপায় হয়ে রেলওয়ে থানা মামলার প্রস্তুতি চলছে।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে ভৈরব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ শাহীন আরটিভি অনলাইনকে জানান, গণধর্ষণের ঘটনাটি শুনেছি। ঘটনাস্থলটি রেলওয়ে থানা এলাকা হওয়ায় রেলওয়ে থানায় মামলা হচ্ছে। ধর্ষকদের গ্রেপ্তার করতে পুলিশ সর্বোচ্চ চেষ্টা চালাবে।

জেবি

RTVPLUS