logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর ২০২০, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

নাটোর প্রতিনিধি, আরটিভি অনলাইন

  ০৬ জানুয়ারি ২০২০, ১৩:১৬

বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রের চোখ তুলে হত্যা, প্রেমিকাসহ আটক ৮

হত্যা স্কুলছাত্র নিহত
ফাইল ছবি
নাটোরে রাজশাহী সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজির ছাত্র মো. কামরুল ইসলাম হত্যার ঘটনায় প্রেমিকা সোনিয়াসহ আটজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে নাটোর থানা  পুলিশ।

গতকাল রোববার রাত নয়টার দিকে হালসা গ্রামের জনৈক মো. নুরুর ইসলামের বাঁশঝাড় থেকে মরদেহটি উদ্ধারের পর অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।

তবে এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় নাটোর থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। এখন পর্যন্ত এই হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে প্রেমিকা সোনিয়া জড়িত রয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে নিশ্চিত করেছে পুলিশ।

নাটোর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তদন্ত ফরিদুল ইসলাম বলেন, গেল শনিবার রাত আটটার  দিকে মোবাইল ফোনে কামরুল ইসলামকে তার প্রেমিকা  মোছা. সোনিয়া ডেকে নেয়। এরপর আর বাড়ি ফেরেনি কামরুল।

পরে রোববার সন্ধ্যায় স্থানীয়রা বাঁশঝাড়ের ভেতর মরদেহ দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ গিয়ে মরদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নাটোর আধুনিক সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। এ সময় একটি চোখ উঠানো অবস্থা ছিল তার।

ওসি  আরও জানান, প্রাথমিকভাবে এই হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে কামরুল ইসলামের প্রেমিকা সোনিয়া জড়িত রয়েছে। অধিকতর তদন্তের জন্য সোনিয়াসহ  আটজনকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।

নিহত কামরুল ইসলাম হালসা গ্রামের আফাজ উদ্দিনের ছেলে। তিনি নাটোর শহরের চকরামপুরে অবস্থিত রাজশাহী সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজির (আরএসটিইউ) বিবিএ শেষ বর্ষের ছাত্র।

জেবি

RTVPLUS