logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

তাপমাত্রা কিছুটা বেড়েছে পঞ্চগড়ে, আগামী ২ দিন বৃষ্টির সম্ভাবনা

তাপমাত্রা কিছুটা বেড়েছে পঞ্চগড়ে, আগামী ২ দিন বৃষ্টির সম্ভাবনা
দেশের সর্ব উত্তরের জেলা পঞ্চগড়ে জানুয়ারির প্রথম দিন থেকে শীতের তীব্রতা কমেছে। গত চারদিনে ১০ থেকে ১৩ ডিগ্রি তাপমাত্রা বিরাজ করছে পঞ্চগড়ের আবহাওয়ায়। 

শনিবার সকাল ৮টার দিকে সূর্যের দেখা মিলেছে পঞ্চগড়ের আকাশে। তবে রোদের তীব্রতা নেই।

তেঁতুলিয়া আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রহিদুল ইসলাম জানায়, আজ শনিবারে (৪ জানুয়ারি) তাপমাত্রা সকাল ছয়টায় ১৩ দশমিক ৪ ডিগ্রি এবং সকাল নয়টায় ১২ দশমিক ৯ ডিগ্রী সেলসিয়াস। আকাশ মেঘাচ্ছন্ন রয়েছে, আগামী দুদিন বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। মেঘ কেটে যাওয়ার পর আবারও শৈত্যপ্রবাহ নামতে পারে। 

এদিকে ঠাণ্ডা হাওয়া থাকলেও নিয়মিত কাজে যোগ দিয়েছে ছিন্নমূল খেটে খাওয়া মানুষেরা। বিশেষ করে জেলার বালু ও পাথর শ্রমিকেরা নদীতে বালু উত্তোলন এবং পাথর উঠানোর কাজে ব্যস্ত সময় পার করছে। 

জেলার প্রধান নদীর নাব্যতা কম থাকলেও জীবিকা নির্বাহের জন্য শনিবার জেলেদের মাছ শিকার করতে নদীর জলে দেখা যায়। 
সদর উপজেলার বিলুপ্ত ছিটমহল জুড়ে চলছে উন্নত জাতের টমেটোসহ সবজি চাষ। পহেলা জানুয়ারি হতে শীতের তীব্রতা ও কুয়াশা না থাকায় জেলায় যানবাহন চলাচলে স্বাভাবিক অবস্থা বিরাজ করছে। 

সদর উপজেলার বিভিন্ন গ্রাম ঘুরে দেখা যায়, মৌসুমি সবজি চাষের সঙ্গে সম্পৃক্ত চাষিরা সকাল থেকেই ক্ষেত পরিচর্যার কাজ করছে। আলু চাষিরা জানায়, প্রচণ্ড শীতে ঘন কুয়াশা থাকলে প্রতি সপ্তাহে আলুর ক্ষেতে কুয়াশা নাশক স্প্রে না করলে ক্ষেত নষ্ট হয়ে যায়। 

জেলা প্রশাসন, বেসরকারি এনজিও ও সেচ্ছাসেবী সংগঠনের উদ্যোগে পঞ্চগড়ে শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ অব্যাহত রয়েছে। 

শুক্রবার (৩ জানুয়ারি) দুপুর থেকে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ডা: এনামুর রহমান বোদা উপজেলার ময়দানদিঘি উচ্চ বিদ্যালয় সদর উপজেলার দ্বারিকামারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং তেতুঁলিয়া উপজেলায় শীতবস্ত্র, শিশু খাদ্য এবং শুকনো খাবার বিতরণ করেছেন।

এসএস

RTVPLUS