logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ২১ জানুয়ারি ২০২০, ৮ মাঘ ১৪২৭

স্কুলের মাটি কেটে নিজ বাড়িতে নিচ্ছেন প্রধান শিক্ষক

স্টাফ রিপোর্টার, কুড়িগ্রাম, আরটিভি অনলাইন
|  ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৭:৫৬
শিক্ষক প্রধান মাটি
শ্রমিকদের দিয়ে স্কুলের মাঠ থেকে মাটি কেটে নিয়ে যাচ্ছেন প্রধান শিক্ষক
কোনও নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার নাওডাঙ্গা ইউনিয়নের কুরুষা ফেরুষা খন্দকার পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হাফিজুর রহমান স্কুলের শিক্ষার্থীদের খেলার মাঠের মাটি কেটে নিয়ে তার নিজ জায়গায় ভরাট করছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এছাড়াও তিনি স্কুলের মাঠের এক কোণে থাকা বিশাল আকৃতির একটি বট গাছের ডালপালাসহ শাখা প্রশাখাগুলো কেটে সাবার করছেন বলেও অভিযোগ।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, তার স্কুলসংলগ্ন বাড়ি হওয়ায় এলাকাবাসীকে  তিনি তোয়াক্কা করেন না। সম্প্রতি স্থানীয়দের অভিযোগের প্রেক্ষিতে এমন চিত্র পাওয়া গেছে।

অভিযোগে জানা যায়, শুক্রবার স্কুল বন্ধ থাকাকালীন সময়ে সকাল  আটটার মধ্যেই স্কুল মাঠের মাটি কেটে প্রধান শিক্ষক হাফিজুর রহমান  ট্রলিতে করে তা নিয়ে গিয়ে অন্যত্র খাল ভরাট করেছেন। স্কুল মাঠে ছাত্র-ছাত্রীদের খেলাধুলা করার জন্য ৪০ শতক জমি থাকলেও প্রধান শিক্ষক সেখান থেকে সাত শতক জমির মালিকানা দাবি করেন। জমি পাওয়ার অজুহাতে তিনি মাটি কেটে নেন ও গাছের ডালপালা কেটে ফেলেন।

এলাকাবাসী ও স্কুলের অভিভাবকগণ জানান, প্রধান শিক্ষক হাফিজুর রহমান স্কুলের মাঠ থেকে বাচ্চাদের খেলাধুলা করার মাটি কিভাবে কেটে নিয়ে অন্যত্র ফেলেন এটা প্রশাসনকে দেখতে হবে। তারা এ প্রধান শিক্ষকের শাস্তি দাবি করে বলেন, বাড়ির কাছে স্কুল হলেও তিনি সময় মতো স্কুলে আসেন না। এতে আমাদের বাচ্চারা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।

এ স্কুলের দেয়াল জরাজীর্ণ,  টয়লেট নোংরা,  ক্লাসরুমের দরজা জানালা ভাঙা ও অপরিষ্কার।

স্কুলের মাঠে সবসময় চরানো হয় গরু-ছাগল। যার কারণেও স্কুলের শিক্ষার্থীরা মাঠে খেলাধুলা করতে পারে না।

জেবি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • দেশজুড়ে এর সর্বশেষ
  • দেশজুড়ে এর পাঠক প্রিয়