logo
  • ঢাকা রোববার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

বরিশাল প্রতিনিধি, আরটিভি অনলাইন

  ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৩:০১
আপডেট : ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৪:৩০

বরিশালে ৩ খুন

জবানবন্দি দিলেন দুই আসামি, বাড়ির মালিকের স্ত্রী গ্রেপ্তার

হত্যা গ্রেপ্তার জবানবন্দি
ফাইল ছবি
পরকীয়া প্রেমের জেরেই বরিশালে সংঘটিত হয়েছে ত্রিপল মার্ডার। গতকাল রোববার রাতে গ্রেপ্তারকৃত জাকির ও জুয়েল সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট এনায়েত উল্লাহ খানের কোর্টে তিন খুনে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছেন। এদিকে জাকির ও জুয়েলের তথ্যের ভিত্তিতে বাড়ির মালিক প্রবাসী আব্দুর রবের স্ত্রী নিশরাত জাহানকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

এ বিষয়ে  বানারীপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শিশির কুমার পাল জানান, দুই বছর আগে প্রবাসী আবদুর রবের স্ত্রী  নিশরাত জাহানের সঙ্গে বাড়িতে কাজ করতে এসে সম্পর্ক হয় জাকিরের। মাসখানেক আগে এই সম্পর্কের কথা শাশুড়ি মরিয়ম বেগমসহ বাড়ির লোকজন জানতে পারে। তাই জাকির সাত দিন আগে এদের মেরে ফেলার সিদ্ধান্ত নেয়। জাকির মাঝে মধ্যে ত্রি হুইলার চালাতো। সেই সুবাদে জুয়েলের সঙ্গে তার পরিচয় হয়। তার এই পরিকল্পনায় যুক্ত হয় প্রবাসী আবদুর রবের স্ত্রী নিশরাত জাহান। সেই অনুযায়ী নিশরাত ঘটনার রাতে ঘরের দরজা খুলে রাখে। জাকির জুয়েলকে নিয়ে ঘরে প্রবেশ করে ঘুমন্ত অবস্থায় মাফলার ও বালিশ দিয়ে মরিয়ম বেগম, বেড়াতে আসা ভগ্নিপতি সফিকুল আলম ও খালাতো ভাই ইউসুফকে  হত্যা করে। পরে ইউসুফকে হাত-পা বেঁধে পুকুরের ঘাটলায় ফেলে রাখে।

হত্যার ঘটনায় মরিয়মের অপর ছেলে সুলতান মাহমুদ বাদী হয়ে বানারীপাড়া থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

প্রসঙ্গত, গেল সাত ডিসেম্বর দিনগত রাতে বানারীপাড়া উপজেলার সলিয়াবাকপুর গ্রামে প্রবাসী আবদুর রবের বৃদ্ধা মা মরিয়ম বেগম, বেড়াতে আসা মেঝ ভগ্নিপতি সফিকুল আলম ও খালাতো ভাই ইউসুফ খুন হন। পুলিশ সন্দেহভাজন রাজমিস্ত্রী জাকির হোসেনকে গ্রেপ্তার করে। জাকিরের বাড়ি থেকে স্বর্ণের চুড়ি, তিনটি মোবাইল ফোন ও একটি চাকু উদ্ধার করে। পরে র‌্যাব নগরীরর মতাসুর এলাকা থেকে জাকিরের সহযোগী জুয়েল হাওলাদারকে গ্রেপ্তার করে।

---------------------------------------------------------------
আরো পড়ুন: চট্টগ্রামে ওয়াটার বাস চালু
---------------------------------------------------------------

হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তারকৃত দুই আসামি বরিশাল সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মো. এনায়েত উল্লাহর কাছে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। পরে তাদের জেল হাজতে পাঠানো হয়।

অপরদিকে গ্রেপ্তারকৃত রাজমিস্ত্রি জাকির হোসের ও জুয়েলের দেওয়া তথ্যানুযায়ী হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে নিশরাতের জড়িত থাকার বিষয়টি সামনে আসে। এরপর তাকে বানারীপাড়ার সলিয়াবাকপুর এলাকার নিজ বাসা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। গতকাল রোববার রাত ১১টায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বরিশাল জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মুহম্মদ আব্দুর রকিব।

জেবি/পি

RTVPLUS