logo
  • ঢাকা বৃহস্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

ধর্ষণের পর হত্যা মামলায় দুজনের মৃত্যুদণ্ড

পাবনা প্রতিনিধি, আরটিভি অনলাইন
|  ২০ নভেম্বর ২০১৯, ১৩:১৯ | আপডেট : ২০ নভেম্বর ২০১৯, ১৩:২৫
ধর্ষণ হত্যা মৃত্যুদণ্ড
ফাইল ছবি
দীর্ঘ সাত বছর পর পাবনায় গার্মেন্টস কর্মী কাকলীকে (৩০) ধর্ষণ ও হত্যার দায়ে দুজনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। সেইসঙ্গে তাদেরকে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

বুধবার সকালে পাবনা নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইব্যুনালের বিচারক ওয়ালিউর রহমান এই রায় দেন।

মৃত্যুদণ্ড প্রাপ্তরা হলেন, পাবনা জেলার সুজানগর থানার বনগ্রামের নিজাম উদ্দিনের ছেলে আজিম উদ্দিন (৪৪) ও তার বন্ধু ঢাকা নবীনগরের মৃত আনোয়ার হোসেনের ছেলে ইকবাল হোসেন (৪৪)।

নিহত কাকলী খাতুন রাজবাড়ী জেলার কালুখালী উপজেলার জলিল সরদারের মেয়ে ও ঢাকার একটি কারখানার গার্মেন্টস কর্মী ছিলেন।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, ২০১২ সালের চার সেপ্টেম্বর তারিখে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে আসামি ইকবাল ও আজিম ঢাকা থেকে কাকলীকে পাবনার সুজানগরে নিয়ে আসে। এরপর রাতে উপজেলার রামজীবনপুর মাঠের একটি নার্সারির মধ্যে নিয়ে তাকে ধর্ষণের পর শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। পরে স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে সুজানগর থানার উপ-পরিদর্শক রওশন মিয়া ঘটনাস্থল থেকে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাবনা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।এরপর সুজানগর থানায় অজ্ঞাতনামাদের আসামি দিয়ে একটি হত্যা মামলা  করা হয়। পরে আসামিদের মোবাইল কল ট্র্যাকিং করে তাদের আটক করা হয় এবং হত্যার বিষয়ে তারা জড়িত বলে স্বীকার করেন।

এরপর মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই রওশন আজিম ও ইকবালকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দেন। দীর্ঘ শুনানি ও সাক্ষ্য-প্রমাণ শেষে আসামিদের উপস্থিতিতে আজ বুধবার সকালে পাবনা নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইব্যুনালের বিচারক ওয়ালিউর রহমান এই রায় দেন। এ সময় তিনজনের মধ্যে একজনকে বেকসুর খালাস দেওয়া হয়।

জেবি/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • দেশজুড়ে এর সর্বশেষ
  • দেশজুড়ে এর পাঠক প্রিয়