logo
  • ঢাকা বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

ঠাকুর দেখতে যাওয়া কিশোরীকে ঘরে নিয়ে ধর্ষণ

  যশোর প্রতিনিধি, আরটিভি অনলাইন

|  ১৪ নভেম্বর ২০১৯, ১৬:৫৬ | আপডেট : ১৪ নভেম্বর ২০১৯, ১৭:৪৪
ধর্ষণ স্কুলশিক্ষক খুলনা
প্রতীকী ছবি
যশোরের মণিরামপুর উপজেলায় কালীপূজার ঠাকুর দেখতে গিয়ে ১৩ বছর বয়সী এক বুদ্ধি প্রতিবন্ধী কিশোরী ধর্ষণের শিকার হয়েছে।

এই ঘটনায় কিশোরীর মা গেল মঙ্গলবার রাতে মণিরামপুর থানায় মামলা করেন।

বুধবার পুলিশ অভিযুক্ত ধর্ষক শিবপদ রায়কে (৪৭) আটক করে আদালতে সোপর্দ করেছে।

শিবপদ উপজেলার পাঁচাকড়ি গ্রামের কালিপদ রায়ের ছেলে। তিনি খুলনার ডুমুরিয়ার হাসানপুর হাইস্কুলের শিক্ষক। তার স্ত্রী সোনালি বিশ্বাসও পেশায় শিক্ষক।

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, ওই কিশোরীর বাড়ি খুলনার ডুমুরিয়ায়। সম্প্রতি মায়ের সঙ্গে সে মণিরামপুরের পাঁচাকড়ি গ্রামে মামার বাড়িতে বেড়াতে আসে।

গেল ২৭ অক্টোবর কালীপূজার দিন বিকেল চারটার দিকে পাঁচাকড়ি রাজবংশীপাড়া কালীমন্দিরে পূজা দেখতে যায় সে। তখন শিবপদ রায় তাকে নানা প্রলোভন দেখিয়ে নিজ বাড়িতে নিয়ে যায়। ওই সময় শিবপদদের স্ত্রী  সোনালি বিশ্বাস বাড়িতে ছিলেন না। সেই সুযোগে বসতঘরের মধ্যে কিশোরীকে ধর্ষণ করেন শিবপদ। ঘটনার বিষয়ে কাউকে কিছু না বলার জন্য ওই কিশোরীকে হুমকিও দেন।

স্থানীয়রা জানান, ঘটনার দুই-তিন দিন পর ওই কিশোরী তার মাকে বিষয়টি খুলে বলে। পরে ঘটনা চাপা দিতে দুইপক্ষের মধ্যে সমঝোতার চেষ্টা চলে। একপর্যায়ে ঘটনাটি এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মণিরামপুর থানার এসআই জামাল হোসেন বলেন, অভিযুক্ত ধর্ষক শিবপদকে আটক করে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

জেবি

RTVPLUS
bangal
corona
দেশ আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ৪৪৭৩৪১ ৩৬২৪২৮ ৬৩৮৮
বিশ্ব ৫৮৬১২৯৯৫ ৪০৫৭৫৯৪৭ ১৩৮৮৭১০
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • দেশজুড়ে এর সর্বশেষ
  • দেশজুড়ে এর পাঠক প্রিয়