স্বামীর নির্যাতন সইতে না পেরে স্ত্রীর আত্মহত্যা

প্রকাশ | ০৭ নভেম্বর ২০১৯, ১৬:০৫

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি, আরটিভি অনলাইন
প্রতীকী ছবি

টাঙ্গাইলের গোপালপুর উপজেলায় স্বামীর নির্যাতন সইতে না পেরে এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

গতকাল বুধবার উপজেলার মাহমুদপুর পশ্চিমপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত গৃহবধূর নাম চাঁদনী বেগম (২৫)। তিনি

উপজেলার মাদারজানি গ্রামের চাঁন মিয়ার মেয়ে। পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।

পুলিশ জানায়, উপজেলার মাদারজানি গ্রামের চাঁন মিয়ার মেয়ে চাঁদনী বেগমের সঙ্গে একই উপজেলার হাদিরা ইউনিয়নের মাহমুদপুর গ্রামের আখতার হোসেনের ছেলে খোকন মিয়ার পাঁচ বছর আগে বিয়ে হয়। তাদের জান্নাতী (৩) ও আবদুল্লাহ (৩ মাস) নামের দুটি সন্তান রয়েছে।

চাঁদনীর বাবা চাঁন মিয়া অভিযোগ করেন, বিয়ের পর থেকেই খোকন যৌতুকের জন্য চাঁদনীকে প্রায়ই মারধর করতো। দাবি মতো টাকা না দিলে আমার মেয়ের ওপর নির্যাতনের মাত্রা আরও বাড়িয়ে দেয়।

মঙ্গলবার সকালে ও দুপুরে চাঁদনীকে দুই দফা মারধর করা হয়। সারাদিন তাকে খেতে দেওয়া হয়নি। সন্ধ্যার পর খোকন তাকে তৃতীয় দফা মারধর করতে গেলে চাঁদনী আত্মরক্ষার্থে রান্নাঘরে খিল দিয়ে আশ্রয় নেয়। পরে রাতের কোনও একসময় চাঁদনী রান্নাঘরের আড়ার সঙ্গে ওড়না বেঁধে গলায় ফাঁস দিতে আত্মহত্যা করে।

এ ব্যাপারে গোপালপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান আরটিভি অনলাইনকে বলেন, পুলিশ খবর পেয়ে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। এ ব্যাপারে থানায় ইউডি মামলা হয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পাওয়ার পর পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

জেবি