logo
  • ঢাকা শনিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৯, ৩ কার্তিক ১৪২৬

চুয়াডাঙ্গায় আ.লীগ নেতাকে কুপিয়ে জখম, আটক-৪

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি
|  ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৮:৩৩ | আপডেট : ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৯:০৫
চুয়াডাঙ্গায় আ.লীগ নেতাকে কুপিয়ে জখম, আটক-৪
চুয়াডাঙ্গায় আ.লীগ নেতাকে কুপিয়ে জখম, আটক-৪
চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক ও চুয়াডাঙ্গা জেলা জজ কোর্টের এপিপি অ্যাডভোকেট শফিকুল ইসলাম শফিকে কুপিয়ে জখম করেছে দুর্বৃত্তরা। 

শনিবার (২২ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে ৮টার দিকে শহরের রেলবাজার এলাকায় তার ওপর এ হামলা চালানো হয়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। 

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, চুয়াডাঙ্গা শহরের রেল পাড়ার মৃত ইউসুফ আলীর ছেলে আওয়ামী লীগ নেতা ও আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের যুগ্ম সম্পাদক অ্যাডভোকেট শফিকুল ইসলাম শফি রাতে শহরের রেল বাজার এলাকার একটি চায়ের দোকানে বসে গল্প করছিল। এ সময় ৮/১০ জন দুর্বৃত্ত ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাকে উপর্যুপরি কোপাতে থাকে। এক পর্যায়ে শফিকুল মাটিতে লুটিয়ে পড়লে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা তাকে দ্রুত উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। 

---------------------------------------------------------------
আরো পড়ুন: টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ রোহিঙ্গা স্বামী-স্ত্রী নিহত
---------------------------------------------------------------

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের সার্জারি কনসালটেন্ট ডা. ওয়ালিউর রহমান নয়ন জানান, ধারালো অস্ত্রের উপর্যপুরী কোপে আওয়ামী লীগ নেতা শফির পিঠে ঘাড়ে ও পেটে মারাত্মক জখম হয়েছে। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক। উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকাতে রেফার্ড করা হবে। 

চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আশাদুল হক বিশ্বাস অ্যাডভোকেট শফির ওপর হামলাকে ন্যক্কারজনক উল্লেখ করে বলেন, অবিলম্বে হামলাকারীদেরকে গ্রেপ্তার করতে হবে। অন্যথায় শান্ত চুয়াডাঙ্গা অশান্ত হলে দায় প্রশাসনকে নিতে হবে। 

চুয়াডাঙ্গা পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম হামলার প্রতিক্রিয়ায় বলেন, হামলাকারীরা যে বর্ণের হোক তার প্রকৃত পরিচয় তারা সন্ত্রাসী। তারা যত বড়ই শক্তিশালী হোক তাদেরকে গ্রেপ্তার  করে আইনের আওতায় আনা হবে। এ হামলার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে ৪ জনকে আটক করা হয়েছে।

এসএস

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়