logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ০৫ মার্চ ২০২১, ২০ ফাল্গুন ১৪২৭

মায়ের করুণ মৃত্যু ফ্যাল ফ্যাল করে তাকিয়ে দেখলো লামিয়া

মৃত্যু, মা, শিশু

একটি ইঞ্জিনচালিত রিকশায় করে আরিফা খাতুন খালাতো বোনের বিয়ের দাওয়াত খেতে যাচ্ছিলেন। সঙ্গে ছিল তিন বছরের মেয়ে লামিয়া। হয়তো কতো আনন্দের স্বপ্ন বুনে মা ও মেয়ে বিয়ের দাওয়াত খেতে যাচ্ছিলেন। কিন্তু কে জানতো বিয়ে বাড়িতে যাওয়ার আনন্দ মুহূর্তেই স্তব্ধ হয়ে যাবে একটি দুর্ঘটনায়।

রিকশাটি শহীদ স্মরণী সড়কের মানিকগঞ্জ জেলা পরিষদ এলাকায় আসতেই চাকায় ওড়না পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস লেগে যায় আরিফার। শ্বাস বন্ধ হয়ে মারা যায় সে। পাশেই বসা তিন বছরের শিশু লামিয়া মায়ের এই করুণ মৃত্যু দৃশ্য দেখলেও কিছুই করার ছিল না তার।

শুধুই ফ্যাল ফ্যাল করে তাকিয়ে ছিল। গতকাল বৃহস্পতিবার রাত সোয়া আটটার দিকে এই দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত আরিফা (২৫) শহরের বড়সরুণ্ডী এলাকার হারুন মিয়ার মেয়ে এবং জয়রা রোডের ভিলেজ লাইন পরিবহনের বাসচালক খোকন মিয়ার স্ত্রী।

মানিকগঞ্জ জেলা হাসপাতালের দায়িত্বরত চিকিৎসক মো. শহিদুর আজম আরটিভি অনলাইনকে বলেন, রাত পৌনে নয়টার দিকে আরিফা আক্তারকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়। রিকশার চাকায় ওড়না পেঁচিয়ে শ্বাস বন্ধ হয়ে মারা যান তিনি। তার গলায় কাটা দাগ ছিল বলেও জানান চিকিৎসক।

ঘটনার পর রিকশাচালক পালিয়ে গেছে। তবে রিকশাটি আটক করা হয়েছে।

জেবি

RTV Drama
RTVPLUS