logo
  • ঢাকা বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯, ১ কার্তিক ১৪২৬

৯৯৯ এ কল দিয়ে ধর্ষণের হাত থেকে বাঁচল কলেজছাত্রী

ভৈরব প্রতিনিধি
|  ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১১:২৮
কল, ধর্ষণ, ৯৯৯
জরুরি সেবা ৯৯৯ এ কল দিয়ে ধর্ষণের হাত থেকে বাচঁলো এক কলেজছাত্রী। পরে শিক্ষার্থীর অভিযোগের ভিত্তিতে বখাটেকে আটক করেছে থানা পুলিশ। এমনি এক ঘটনা ঘটেছে গেল সোমবার বিকেলে কিশোরগঞ্জের ভৈরব উপজেলার শিবপুর ইউনিয়নের টান কৃষ্ণনগর গ্রামে। পুলিশের হাতে আটক বখাটে যুবকের নাম হৃদয় মিয়া। তিনি একই গ্রামের কাজল মিয়ার ছেলে। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে তাকে জেলা কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ ও শিক্ষার্থীর স্বজনরা জানায়, উপজেলার শিবপুর ইউনিয়নের টান কৃষ্ণনগর গ্রামের এক মুক্তিযুদ্ধার সন্তান কলেজছাত্রী। তিনি স্থানীয় একটি কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। বাবা-মা হারা কলেজছাত্রী লিমা বড় ভাইয়ের সংসারে থেকে পড়াশুনা করছে।  বখাটে যুবক হৃদয় ওই কলেজছাত্রীকে দীর্ঘদিন ধরে উত্ত্যক্ত করতো। এই বিষয়ে হৃদয়ের পরিবার ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের কাছে একাধিকবার অভিযোগ করেও কোনও প্রতিকার পায়নি ভুক্তভোগী ছাত্রী। ফলে বাধ্য হয়ে বছর-দেড়েক আগে থানায় সাধারণ ডায়েরি এবং উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর লিখিত অভিযোগ করেন কলেজছাত্রী। পরে কিছুদিন নিরব থাকার পর আবারও উত্ত্যক্ত করতে শুরু করে হৃদয়। 

গেল সোমবার দুপুরে বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগ নিয়ে ঘুমন্ত অবস্থায় বসতঘরে ঢুকে দরজা আটকে দেয় বখাটে যুবক হৃদয়। বিষয়টি টের পেয়ে তার  চিৎকারে আশপাশের প্রতিবেশীরা এগিয়ে এলে হৃদয় পালিয়ে যায়। পরে লিমার বড় ভাই জরুরি সেবা ৯৯৯ এ কল করে পুলিশের সহযোগিতা চান। এরপর ভৈরব থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে বখাটে যুবককে আটক করতে সক্ষম হয়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন ভৈরব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মো. মোখলেছুর রহমান।

 জেবি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়