চট্টগ্রামে অতিভারি বৃষ্টির আভাস, পাহাড় ধসের শঙ্কা

প্রকাশ | ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৮:৪৪ | আপডেট: ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৮:৫৯

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
ঝড়ো হাওয়া বয়ে যাওয়ার আশঙ্কায় সমুদ্র বন্দরগুলোকে তিন নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলেছে আবহাওয়া অফিস।

উত্তর বঙ্গোপসাগরে বায়ুচাপের তারতম্যের কারণে সাগর উত্তাল রয়েছে। ফলে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যাওয়ার আশঙ্কায় সমুদ্র বন্দরগুলোকে তিন নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলেছে আবহাওয়া অফিস। অন্যদিকে ভারী বর্ষণের কারণে পাহাড়ে ভূমিধসের আভাস দিয়েছে সংস্থাটি।

আবহাওয়াবিদ মো. ওমর ফারুক জানিয়েছেন, উত্তর বঙ্গোপসাগর এলাকায় বায়ুচাপের তারতম্যের আধিক্য বিরাজ করছে। বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকা, উত্তর বঙ্গোপসাগর এবং সমুদ্র বন্দরগুলোর উপর দিয়ে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে।

তাই চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মোংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দরকে তিন নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। একই সঙ্গে উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত মাছ ধরা ট্রলার ও নৌকাগুলোকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত উপকূলের কাছাকাছি থেকে সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে।

এদিকে আবহাওয়াবিদ মো. আফতাব উদ্দিন জানিয়েছেন, মৌসুমি বায়ু সক্রিয় থাকার কারণে বৃহস্পতিবার (১২ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১টা পর্যন্ত চট্টগ্রাম বিভাগের কোথাও কোথাও ভারী থেকে অতিভারী বর্ষণ হতে পারে। তাই পাহাড় ধসের আশঙ্কা রয়েছে।

৪৪ থেকে ৮৮ মিলিমিটার বৃষ্টিপাতকে ভারী এবং ৮৯ মিলিমিটারের বেশি বর্ষণকে অতিভারী বর্ষণ বলা হয়।

মঙ্গলবার (১০ সেপ্টেম্বর) ৪২২ মিলিমিটার বর্ষণে টেকনাফে পাহাড় ধসের ঘটনা ঘটে। এতে নিহত হয় দু’জন।

---------------------------------------------------------------------
আরও পড়ুন : ডেঙ্গু সচেতনতায় আরটিভি’র উদ্যোগে গাজীপুরে মানববন্ধন
---------------------------------------------------------------------

বৃহস্পতিবার (১২ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত দেওয়া এক পূর্বভাসে আবহাওয়া অধিদফতর বলেছে-বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের জায়গায়; ঢাকা, খুলনা ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় এবং রাজশাহী, রংপুর ও ময়মনসিংহ বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে অতি ভারী বর্ষণ হতে পারে।

আগামী শনিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) নাগাদ বৃষ্টিপাতের এই প্রবণতা কমতে পারে।

আবহাওয়া অফিসের প্রকাশিত বৃষ্টিপাতের চিত্র থেকে দেখা গেছে, দেশের দু’এক জায়গা ছাড়া সবখানেই বৃষ্টিপাত হচ্ছে। তবে সেটি খুব কম পরিমাণে। বাতাসের আর্দ্রতার পরিমাণ রয়েছে ৮৩ শতাংশ। ফলে গরমও কমছে না।

এসজে