logo
  • ঢাকা সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১ আশ্বিন ১৪২৬

কুষ্টিয়ায় হত্যা মামলায় দুইজনের মৃত্যুদণ্ড

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি
|  ০৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৫:৫১ | আপডেট : ০৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৭:১০
মৃত্যুদণ্ড, যাবজ্জীবন, হত্যা
কুষ্টিয়া ভেড়ামারা থানার আলোচিত সোহাগ হত্যা মামলায় দুই আসামিকে ফাঁসির দড়িতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ড ও তিনজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এছাড়াও যাবজ্জীবনপ্রাপ্ত তিন আসামিকে ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরও এক বছর সশ্রম কারাদণ্ড ঘোষণা করা হয়।

বুধবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে কুষ্টিয়ার জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক অরূপ কুমার গোস্বামী এই রায় ঘোষণা করেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন কুষ্টিয়ার মিরপুর থানার আহম্মদপুর গ্রামের আহাদ আলীর ছেলে মো. নাজমুল ও ভেড়ামারা উপজেলার ১২ মাইল এলাকার আবুল কালামের ছেলে মো. রনি।

যাবজ্জীবনপ্রাপ্তরা হলেন কুষ্টিয়ার চৌড়হাঁস এলাকার ইসমাইল হোসেনের ছেলে মো. রাব্বি, কুমারগাড়া এলাকার আব্দুল আজিজের ছেলে মো. সুজা ও চৌড়হাঁস বড় মসজিদ এলাকার মো. খলিলের ছেলে মো. রফিক।

-------------------------------------------------------------------------
আরো পড়ুন: চার মহাসড়ক চারলেনে উন্নীত হচ্ছে
-------------------------------------------------------------------------

আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাডভোকেট অনুপ কুমার নন্দী জানান, ২০১২ সালের নয় অক্টোবর সকালে ভেড়ামারা থেকে সোহাগসহ আসামিরা মোটরসাইকেল করে বেড়ানোর উদ্দেশে বের হয়। এরপর থেকে সোহাগের কোনও খোঁজ-খবর পাওয়া যায়নি। পরদিন ভেড়ামারা থানাধীন হার্ডিঞ্জ ব্রিজ থেকে আধা কিলোমিটার উত্তরে ইপিল ইপিল বাগানে তার মরদেহ পাওয়া গেছে। একটি মোবাইল ফোনের জন্য তাকে হত্যা করা হয়। নিহত সোহাগের খালু শহিদুল ইসলাম ভেড়ামারা থানায় পাঁচজনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলায় দীর্ঘ শুনানি শেষে আদালত আজ এ রায় দেন।

জেবি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়