logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৯, ১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

রিফাত হত্যা: রাব্বি ও সাইমুন রিমান্ডে

বরগুনা প্রতিনিধি
|  ১২ জুলাই ২০১৯, ১৯:৩৩ | আপডেট : ১২ জুলাই ২০১৯, ১৯:৪৮
রিফাত হত্যা
রাব্বি আকন ৭ দিন ও সাইমুন ৩ দিনের রিমান্ডে ।। ফাইল ছবি
বরগুনায় রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় এজাহারভুক্ত আসামি রাব্বি আকনের সাতদিন এবং জড়িত সন্দেহে গ্রেপ্তার কামরুল হাসান সাইমুনের তিনদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। 

আজ শুক্রবার (১২ জুলাই) বিকেলে বরগুনার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মাদ সিরাজুল ইসলাম গাজী এ আদেশ দেন। 

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা হুমায়ন কবির জানান, আকনকে আদালতে হাজির করে ১০ দিন এবং সাইমুনের পুনরায় পাঁচদিনের রিমান্ডের আবেদন করা হয়। শুনানি শেষে আদালত আকনের সাতদিন এবং সাইমুনের তিনদিন রিমান্ড মঞ্জুর করেন। 

বরগুনা সদর উপজেলার বুড়িরচর ইউনিয়নের হাজারবিঘা গ্রামের কাওসার হোসেন লিটনের ছেলে কামরুল হাসান সাইমুনকে গত ৩ জুলাই পটুয়াখালী থানা পুলিশ গ্রেপ্তার করে। অপরদিকে বৃহস্পতিবার রাত পৌনে ৯ টায় বরগুনা শহর থেকে সদর উপজেলার বুড়িরচর ইউনিয়নের কেওড়াবুনিয়া গ্রামের আবুল কালামের ছেলে রাব্বি আকনকে বরগুনা থানা পুলিশ গ্রেপ্তার করে।

বরগুনার পুলিশ সুপার মো. মারুফ হোসেন জানিয়েছেন, শুক্রবার বিকেল পর্যন্ত রিফাত শরীফ হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত ৬ জনসহ ১৩ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

গত ১ জুলাই মামলার এজাহারভুক্ত ১১ নম্বর আসামি অলি ও তানভীর, ৪ জুলাই রাতে মামলার ৪ নম্বর আসামি চন্দন ও ৯ নম্বর আসামি মো. হাসান, ৫ জুলাই রাতে মো. সাগর ও নাজমুল হাসান এবং ১০ জুলাই রাতে রাফিউল ইসলাম রাব্বী আদালতে হাজির হয়ে বিচারকের সামনে রিফাত শরীফ হত্যার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে। এখন পর্যন্ত ৭ জন আসামি হত্যার দায় স্বীকার করেছে।

প্রধান আসামি নয়ন বন্ড ২ জুলাই ভোরে পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে নিহত হন। দ্বিতীয় আসামি রিফাত ফরাজীকে ৩ জুলাই রাতে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে। মামলার দ্বিতীয় আসামি রিফাত ফরাজীকে হত্যা মামলায় ৭ দিন জিজ্ঞাসাবাদ শেষে অস্ত্র মামলায় আরও ৭ দিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করছে। 
এছাড়াও আরিয়ান শ্রাবণ, টিকটক হৃদয়কে ৫ দিন ও রাতুল সিকদারকে ৩ দিনের রিমান্ডে নিয়ে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদ করছে।

এসএস

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • দেশজুড়ে এর সর্বশেষ
  • দেশজুড়ে এর পাঠক প্রিয়