দখল ও দূষণে মৃতপ্রায় মিরপুরের বাউনিয়া খাল (ভিডিও)

প্রকাশ | ১০ জুলাই ২০১৯, ১৪:০৬ | আপডেট: ১০ জুলাই ২০১৯, ১৫:২৪

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট

দখল ও দূষণে মৃতপ্রায় ‘মিরপুরের নাভি’ হিসেবে পরিচিত বাউনিয়া খাল। কয়েক বছর আগেও নৌকা চলতো যে খাল দিয়ে, সেখান দিয়ে এখন পায়ে হেঁটে চলে মানুষ। ময়লা-আবর্জনা জমে পানির প্রবাহ আটকে যাওয়ায় বৃষ্টির পানিতে তৈরি হয় জলাবদ্ধতা। অথচ খালটি রক্ষায় কোনো উদ্যোগ নেই ঢাকা ওয়াসার। রাজধানীর খালগুলোর এ দুরাবস্থা দেখার যেন কেউ নেই।

সরেজমিনে দেখা যায়, মিরপুর ১৪ নম্বর থেকে শুরু বাউনিয়া খালের। আশপাশের সব খালের সঙ্গে সংযুক্ত হওয়ায় একে ‘মিরপুরের নাভি’ বলা হয়। খালটি ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট, পুরোনো এয়ারপোর্ট, ইব্রাহিমপুর, কাফরুলসহ মিরপুরের বিভিন্ন এলাকার পানি তুরাগ নদীতে নিয়ে যেত।

প্রশস্ত-প্রবহমান সেই খালটিই এখন দখল ও দূষণে মৃত্যুর প্রহর গুণছে। অথচ কয়েক বছর আগেও এখান দিয়ে নৌকা চলতো।

মিরপুর ১৪ নম্বরে দূষণ কিছুটা কম থাকলেও ১৩ নম্বরের ইমাননগর ও পলাশনগরে গিয়ে ভয়াবহ রূপ নিয়েছে। ফলে, সামান্য বৃষ্টিতেই তলিয়ে যায় বিভিন্ন এলাকা।

খালের জমি ভরাট করে স্থাপনা তৈরি করা হয়েছে বিভিন্ন জায়গায়। ভূমি মন্ত্রণালয়ের তত্ত্বাবধানে দরিদ্র বস্তিবাসীদের জন্য ভাসানটেক পুনর্বাসন প্রকল্পের নামে এই অংশে খালের বেশিরভাগ দখল করা হয়েছিল। এছাড়া, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তিও খালের জমি ভরাট করে নিজস্ব সম্পত্তি বানিয়েছে।

বরাবরের মতোই, এ নিয়ে কথা বলতে রাজি হয়নি ঢাকা ওয়াসা। তবে, উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম জানালেন, খাল দখল ও দূষণমুক্ত করতে উদ্যোগ নেবেন তারাও।

খালটি রক্ষায় এখনই কার্যকর উদ্যোগ নিতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন স্থানীয়রা।  

পি