logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০১৯, ১ শ্রাবণ ১৪২৬

গাজীপুরে অগ্নিকাণ্ডে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৬

গাজীপুর প্রতিনিধি
|  ০৩ জুলাই ২০১৯, ১৪:২৪ | আপডেট : ০৩ জুলাই ২০১৯, ১৮:২৮
গাজীপুরে অগ্নিকাণ্ড
গাজীপুরে কারখানায় অগ্নিকাণ্ডে নিহত শ্রমিকের মরদেহ
গাজীপুরের শ্রীপুরে অটো স্পিনিং মিল নামে একটি কারখানার তুলার গুদামে আগুন লাগার ঘটনায় বুধবার দুপুর ১২টা নাগাত মোট ছয়জনের মরদেহ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিসকর্মীরা।

শ্রীপুর উপজেলার ধনুয়া গ্রামের মোহাম্মদ জয়নালের ছেলে এসি প্ল্যান বিভাগের আনোয়ার হোসেন (২৮), ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলার আলাউদ্দিনের ছেলে নিরাপত্তা কর্মী রাসেল মিয়া (৪৫), গাজীপুর ইউনিয়নের হাসেন আলীর ছেলে কোয়ালিটি বিভাগের শাহজালাল(২৬), গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার ভান্নারা গ্রামের শামসুল হকের ছেলে সিনিয়র উৎপাদন কর্মকর্তা সেলিম কবীর (৪২), ময়মনসিংহের হালুয়াঘাট উপজেলার ভুবনেশ্বর গ্রামের আবির রায়হান ও  পাবনা কেরামত সর্দারের  ছেলে এসি প্ল্যান্ট বিভাগের সুজন সর্দার। 

রায়হান ও সুজন কারখানার এসি প্ল্যান্টে কাজ করতেন। তাদের দেহ অঙ্গার হয়ে গেছে। নিহত ব্যক্তিদের মধ্যে শাহজালালের পুরো শরীর পুড়ে গেছে। তার মরদেহের পাশে মোটরবাইকের চাবি ও অন্যান্য আলামত দেখে স্বজনরা তার মরদেহ শনাক্ত করেন। এ ঘটনায় ছয় সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে জেলা প্রশাসন।

মঙ্গলবার দুপুর আড়াইটার দিকে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক ঘেঁষা নয়নপুর এলাকার ওই কারখানায় আগুন লাগে। আগুন লাগার পরপরই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক ও স্থানীয় সংসদ সদস্য ইকবাল হোসেন সবুজ।

আগুন লাগার পর দমকল বাহিনীর ১৪টি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করে। আশপাশে কোনও পানির উৎস না থাকায়  আগুন নিয়ন্ত্রণে দেরি হয়।

কারখানার মহাব্যবস্থাপক (জিএম) হারুন অর রশিদ সাংবাদিকদের জানান, অগ্নিকাণ্ডের উৎস সম্পর্কে কিছুই জানা যায়নি। আগুনে গুদামের প্রচুর তুলা পুড়ে গেছে। এখনও ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ জানা যায়নি। তবে আগুনের ঘটনা তদন্তে পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছেন জেলা প্রশাসক।

জেবি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়