logo
  • ঢাকা সোমবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ১ পৌষ ১৪২৬

বাবার কাছ থেকে সম্পত্তি লিখে নিয়ে বৃদ্ধ মাকে হত্যাচেষ্টা

নড়াইল প্রতিনিধি
|  ২২ জুন ২০১৯, ১৬:৩৬ | আপডেট : ২২ জুন ২০১৯, ১৭:৩৮
বৃদ্ধ মাকে হত্যাচেষ্টা - Rtv Online
বিছানায় পড়ে থাকা বাবার কাছ থেকে সম্পত্তি লিখে নেয়া শেষ। এবার ৭০ বছর বয়সী বৃদ্ধা মাকে গলায় ফাঁস দিয়ে হত্যাচেষ্টা করেছে পাষণ্ড ছেলে। আহত বৃদ্ধা অসহায় অবস্থায় গত ২০ জুন থেকে লোহাগড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি রয়েছে। 

বৃহস্পতিবার (২০ জুন) দুপুরে লোহাগড়া উপজেলার তালবাড়িয়া গ্রামে নিজ বাড়িতে এ ঘটনা ঘটেছে। বৃদ্ধা লোহাগড়া থানায় লিখিত অভিযোগ করলেও পুলিশ তা আমলে নেয়নি বলে অভিযোগ উঠেছে।

জানা গেছে, উপজেলার তালবাড়ীয়া গ্রামের বৃদ্ধ ছানোয়ার শেখ ও স্ত্রী মোহিতন বেগমের নয় ছেলে-মেয়ে। এর মধ্যে সাত মেয়েকে বিয়ে দিয়েছেন। দুই ছেলেকে বিয়ে দিয়ে তাদের সংসারে মা-বাবার বসবাস। প্যারালাইসিস রোগে বাবা বিছানায় শয্যাশায়ী, বয়সের ভারে মা তেমন একটা চলা ফেরা করতে পারেন না। এই সুযোগে ছেলে শওকত শেখ ও বুলু শেখ বোনদের ফাঁকি দিয়ে বাবার কাছ থেকে প্রায় আট একর সম্পত্তিসহ বাড়ি  লিখে নেয়। 

বড় ছেলে বাড়ি ছেড়ে অন্য জায়গায় বাসা ভাড়া করে থাকেন। মাঝেমধ্যে বাড়িতে এলেও মা-বাবার খোঁজ নেন না। ছোট ছেলের সঙ্গে বৃদ্ধাদের থাকতে হয়। চিকিৎসা সেবাতো জোটে না, কোনও রকম দু’বেলা দুমুঠো খেয়ে বেচে থাকা তাদের।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মা মোহিতন বেগম (৭০) জানান, জমি লিখে নেয়ার পর ছেলেরা আমাদের ঠিকমত ওষুধ ও খেতে দেয় না। এ নিয়ে প্রায় দুই ছেলে ও তাদের বউয়ের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয় এমনকি মেয়েদের সাথে ঝগড়া হয়। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে খাবার না পেয়ে ছোট ছেলে বুলু শেখের সঙ্গে কথা বলতে গেলে তিনি প্রথমে দুই হাত দিয়ে গলা টিপে ধরে। এ ঘটনায় থানায় মামলা করার ভয় দিলে ওড়না দিয়ে গলায় পেঁচিয়ে উঠান জুড়ে টানা হেঁচড়া এবং শ্বাসরোধ করে হত্যাচেষ্টা করে। 

চিৎকারে প্রতিবেশীরা এসে মাকে উদ্ধার করে এবং মেয়েদের খবর দেয়। পরে মেয়েরা মাকে নিয়ে লোহাগড়া হাসপাতালে ভর্তি করে।

এ ব্যাপারে মেয়ে সাজেদা পারভীন ও রাশিদা বেগম জানান, দুই ভাই বাবার কাছ থেকে বাড়িসহ জমি লিখে নিয়ে মা-বাবার তেমন খোঁজ খবর নেয় না বরং বউরাসহ তারা নির্যাতন করেন। এ ব্যাপারে কথা বলতে গেলে ভাইরা আমাদেরও মারধর করেন। 

লোহাগড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোর্কারম হোসেন বলেন, এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এসএস

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • দেশজুড়ে এর সর্বশেষ
  • দেশজুড়ে এর পাঠক প্রিয়