বিয়ের প্রলোভনে কিশোরীকে ধর্ষণ, আটক ১

প্রকাশ | ০৮ জুন ২০১৯, ২০:০০ | আপডেট: ০৮ জুন ২০১৯, ২০:১৯

ভৈরব (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে মোবাইল ফোনে ডেকে এনে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে দশটার দিকে পৌর শহরের ভৈরবপুর উত্তরপাড়ায় কাশফুল কিন্ডারগার্টেন স্কুলের ভেতর এই ঘটনা ঘটে।

ধর্ষণের শিকার কিশোরী শহরের পঞ্চবটি এলাকার বাসিন্দা। এ ঘটনায় কিশোরীর মা বাদী হয়ে থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে কিশোরীর প্রেমিক রনি মিয়াকে প্রধান আসামিসহ আরও তিনজনকে আসামি করা হয়েছে।

তারা হলেন- কাশফুল কিন্ডারগার্টেন স্কুলের অফিস সহকারী ইমন মিয়া, তার বন্ধু নূর মোহাম্মদ ও আশিক। পরে পুলিশ আশিককে গ্রেপ্তার করেছে।

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে প্রেমিক রনি মোবাইল ফোনে তার প্রেমিকাকে কাশফুল কিন্ডার গার্টেন স্কুলে ডেকে আনে। পরে স্কুলের অফিস সহকারী ইমনের সহযোগিতায় রনি কিশোরীকে স্কুলের একটি শ্রেণিকক্ষের ভেতর নিয়ে যায়। এসময় কিশোরীর সঙ্গে আসা তার খালাকে কৌশলে বের করে স্কুলের গেইট আটকে দেয়া হয়। পরে কিশোরীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ করে রনি। ধর্ষণের ঘটনায় কিশোরী অসুস্থ হয়ে পড়লে ঘটনাটি পরিবারের নজরে আসে।

ভৈরব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোখলেছুর রহমান আরটিভি অনলাইনকে জানান, কিশোরীর মা বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেছেন। পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে মামলার চার নম্বর আসামি আশিককে গ্রেপ্তার করে। মামলার প্রধান আসামি রনিসহ অন্যদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

জেবি/পি