পুলিশ জামাইয়ের বিরুদ্ধে শাশুড়িকে খুনের অভিযোগ

প্রকাশ | ০৮ জুন ২০১৯, ১২:৫৪ | আপডেট: ০৮ জুন ২০১৯, ১৩:০৯

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট

চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গায় সিআইডি বিভাগে এক কনস্টেবলের বিরুদ্ধে শাশুড়িকে ছুরিকাঘাতে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। 

শুক্রবার (৭ জুন) রাত দেড়টার দিকে উপজেলা শহরের মাদ্রাসাপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর থেকেই পলাতক রয়েছেন অভিযুক্ত জামাই অসীম কুমার ভট্টাচার্য।

নিহতের নাম শেফালী অধিকারী। তিনি মাদ্রাসাপাড়া এলাকার সদানন্দ অধিকারীর স্ত্রী। এ ঘটনায় ওই পুলিশ সদস্যের স্ত্রী ফাল্গুনী অধিকারী ও ছেলে আনন্দ অধিকারী জখম হয়েছেন। তাদের রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। 

জানা যায়, সিআইডির কনস্টেবল অসীম ও তার স্ত্রী ফাল্গুনি ওই এলাকায় একটি বাড়িতে থাকতেন। ওই রাতে ঝগড়ার কারণে  ফাল্গুনি পাশের মহল্লার মাদ্রাসাপাড়ার বাবার বাড়িতে অবস্থান নেন। পরে গভীর রাতে অসীম শ্বশুরবাড়ি গিয়ে স্ত্রীকে ডাকাডাকি করলে ফাল্গুনি দরজা খুলে দেন। এসময় অসীম অতর্কিত ফাল্গুনি অধিকারীকে ছুরিকাঘাত করেন। তার চিৎকারে শ্বশুর, শাশুড়ি ও শ্যালক ছুটে আসেন। এসময় তিনি তাদেরও ছুরিকাঘাত করেন। এতে শাশুড়ি শেফালী অধিকারী ঘটনাস্থলেই মারা যান। ঘটনার পরই জামাই অসীম কুমার ভট্টাচার্য ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যান। খবর পেয়ে পুলিশ রাতেই মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নেয়।

আলমডাঙ্গা থানার ওসি মুন্সী আসাদ জানান, স্ত্রীকে সন্দেহ করতেন কনস্টেবল অসীম। পরকীয়ার কারণে এ হত্যাকাণ্ডে ঘটেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। আসামিকে ধরতে পুলিশি অভিযান শুরু হয়েছে।

এসএস