সহপাঠীরা ডেকে নিয়ে হত্যা, বস্তাবন্দি মরদেহ উদ্ধার, আটক ৩

প্রকাশ | ৩১ মে ২০১৯, ২২:১১ | আপডেট: ০১ জুন ২০১৯, ১৬:৫৫

ভৈরব প্রতিনিধি
ছাদ থেকে রূপক নামের নিহত শিক্ষার্থীর বস্তাবন্দি মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ, ছবি: আরটিভি অনলাইন

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে এক শিক্ষার্থীকে ডেকে নিয়ে গলা কেটে হত্যা করেছে সহপাঠীরা। আজ শুক্রবার সকালে পৌর শহরের ভৈরব আইডিয়াল স্কুলের পেছনে ৬তলা ভবনের ছাদ থেকে রূপক নামের নিহত শিক্ষার্থীর বস্তাবন্দি মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত রূপক শহরের রড, সিমেন্ট ব্যবসায়ী নুরে আলম বিপ্লবের ছেলে।

এদিকে হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে তিন সহপাঠীকে আটক করেছে পুলিশ। তারা হলেন- রেজাউল কবির খান, আরাফাত পাটোয়ারী ও ফজলে রাব্বি।

নিহতের পরিবারের সদস্যরা জানায়, গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে রূপকের এক বন্ধু তাকে ফোনে ডেকে নিয়ে যায়। পরে গভীর রাতেও রূপক বাসায় না ফেরায় তাদের সন্দেহের সৃষ্টি হয়। পরে রূপকের পরিবার থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন।

পুলিশ জানায়, প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে মুক্তিপণের উদ্দেশ্যে রূপককে অপহরণ করে তার তিন সহপাঠী। পরে তাদের অপরাধের বিষয়টি ধরা পড়ে যাবার ভয়ে রূপককে জবাই করে হত্যার পর লাশ বস্তাবন্দি করে গুম করার চেষ্টা করে। খবর পেয়ে পুলিশ আজ সকালে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কিশোরগঞ্জ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

ভৈরব থানার ওসি (তদন্ত) বাহালুল আলম বাহার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে তিনজনকে আটক করা হয়েছে।

পি