logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯, ৬ কার্তিক ১৪২৬

নারী আইনজীবী হত্যা: ১০ দিনের রিমান্ডে ইমাম তানভীর

স্টাফ রিপোর্টার, মৌলভীবাজার
|  ২৮ মে ২০১৯, ১৮:২৮
মৌলভীবাজারের চাঞ্চল্যকর নারী আইনজীবী আবিদা সুলতানার (৩২) খুনের ঘটনায় মামলার প্রধান আসামি মসজিদের ইমাম তানভীর আলমের ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। 
এই ঘটনায় ইমাম তানভীরের স্ত্রী হালিমা সাদিয়া ও শাশুড়ি নেহার বেগমের ৮ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। 

মঙ্গলবার (২৮ মে) দুপুরে বড়লেখার জ্যৈষ্ঠ বিচারিক হাকিম হরিদাশ কুমার এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এর আগে আসামিদের আদালতে হাজির করে রিমান্ড আবেদন করে পুলিশ। 

এর আগে মঙ্গলবার দুপুরে বড়লেখা থানায় নিহতের স্বামী শরীফুল ইসলাম বাদী এই হত্যার ঘটনায় চারজনের নাম উল্লেখ করে মামলা দায়ের করেন। মামলার আসামি করা হয়, আবিদা সুলতানাদের বাড়িতে ভাড়া থাকা স্থানীয় একটি মসজিদের ইমাম তানভীর আলম, তার স্ত্রী হালিমা সাদিয়া, ভাই আফসার আলম ও শাশুড়ি নেহার বেগমকে। এছাড়াও অজ্ঞাতনামা আরও কয়েকজনকে এ মামলায় আসামি করা হয়।

উল্লেখ্য, মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলার কাঠালতলী এলাকায় আবিদা সুলতানা নামে এক আইনজীবী দুর্বৃত্তদের হামলায় নিহত হন। নিহত আবিদা উপজেলার দক্ষিণভাগ উত্তর ইউপির মাধবগুল গ্রামের মৃত আব্দুল কাইয়ুমের মেয়ে। আব্দুল কাইয়ুমের তিন মেয়ের মধ্যে আবিদা সুলতানা বড়। প্রায় ৮ বছর আগে লালমনিরহাটের আদিতমারি থানার শরীফুল ইসলামের সঙ্গে তার বিয়ে হয়। আবিদা মৌলভীবাজার জেলা ও দায়রা জজ আদালতের আইনজীবী। তার স্বামী শরীফুল ইসলাম একটি ওষুধ কোম্পানিতে চাকরি করেন। তিনি স্বামীর সঙ্গে মৌলভীবাজার শহরে বসবাস করতেন। 

জানা যায়, ২৬ মে রোববার সকাল আনুমানিক সাড়ে ৮টায় আবিদা বিয়ানীবাজারে বোনের বাড়িতে থেকে জরুরি প্রয়োজনে বাবার বাড়িতে যান। বিকেল আনুমানিক চারটার দিকে আবিদার বোন তার মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাচ্ছিলেন না। পরে আবিদার বোনেরা তাকে খুঁজতে বাবার বাড়ি দক্ষিণভাগ উত্তর ইউপির মাধবগুল গ্রামে আসেন। বাড়িতে এসে তারা কাউকে পাননি। এসময় ঘরের একটি কক্ষ বন্ধ দেখতে পেয়ে তাদের সন্দেহ হয়। পরে তারা পুলিশ নিয়ে গিয়ে ঘরের মেঝেতে বোনের মরদেহ পড়ে থাকতে দেখেন।

এসএস

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়