logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৯, ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

হিলিতে চাষ হচ্ছে হলুদ জাতের তরমুজ

হিলি প্রতিনিধি
|  ২৩ মে ২০১৯, ১৮:৩৬
হিলি সীমান্তের পতিত জমিতে পরিক্ষামূলকভাবে এই প্রথম শুরু হয়েছে তাইওয়ান হলুদ জাতের তরমুজের চাষ। এ জাতের তরমুজ চাষ করে এলাকায় আলোড়ন সৃষ্টি করেছে সীমান্তবর্তী এলাকার দুই যুবক। অন্যান্য তরমুজগুলো কালো বা সবুজ হলেও এর রং হলুদ হওয়ায় প্রতিনিয়িতই তরমুজটি দেখতে জমিতে ভিড় জমায় অন্য জেলার মানুষসহ স্থানীয়রা। প্রতি কেজি তরমুজ জমি থেকেই পাইকারী ৯০ থেকে একশ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

দেশের সীমান্তবর্তী উপজেলা হিলি-হাকিমপুরে পতিত জমিতে তাইওয়ান হলুদ জাতের তরমুজের চাষ শুরু হয়েছে। দেখতে সবুজ বা কালো নয় এর  গায়ের রং হলুদ হওয়ায় তরমুজগুলো দেখতে জমিতে প্রতিনিয়তই ভিড় করছে স্থানীয়রা।

দেখতে হলুদ হলেও মুখে দিলেই মিলবে দেশি তরমুজের স্বাদ। হলুদ জাতের এই তরমুজ চাষ করে এলাকায় চমক সৃষ্টি করেছেন স্থানীয় দুই যুবক রিফাত হোসেন ছোটন ও সোহেল। সুস্বাদু ও রসালো এই ফলের চাষ প্রথম এই এলাকতে হওয়ায় খুশি স্থানীয়রা। স্থানীয় বাজারসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় যাচ্ছে হিলিতে উৎপাদিত এই হলুদ তরমুজ।

তরমুজ চাষি রিফাত হোসেন ছোটন ও সোহেল আরটিভি অনলাইনকে জানান, প্রথমবারের মতো চাষ করলেও লাভ ভালো হওয়ায় আমরা খুশি। প্রথমবারের মতো তিন বিঘা জমিতে তরমুজের চাষ করেছি। প্রতিটি গাছে ধরছে পাঁচ থেকে ছয়টি তরমুজ। চারা রোপণের তিন মাসের মধ্যে গাছে ফলন আসায় মিলছে কাঙ্খিত ফলন। আর বাজারে এ জাতের তরমুজ পাইকারি বিক্রি হচ্ছে ৯০ থেকে একশ টাকা দরে। আর এতে করে লাভের মুখ দেখছি আমরা।

তাদের দেখে আগামীতে এই জাতের তরমুজ চাষে আগ্রহ প্রকাশ করছেন স্থানীয় অনেকে। এলাকাবাসী তাদের তরমুজের জমিতে আসছে এবং তাদের কাছ থেকে বিভিন্ন পরামর্শ নিচ্ছে।

হাকিমপুর উপজেলা কৃষি কর্মকতা শামীমা নাজনীন আরটিভি অনলাইনকে জানান, তরমুজ চাষে কেউ আগ্রহ প্রকাশ করলে উপজেলা কৃষি অফিসের পক্ষ থেকে সব ধরনের সহযোগিতা করা হবে।

জেবি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • দেশজুড়ে এর সর্বশেষ
  • দেশজুড়ে এর পাঠক প্রিয়