• ঢাকা শনিবার, ২৫ মে ২০১৯, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

নাটোরে ঘর থেকে মা, পুকুর থেকে শিশুর মরদেহ উদ্ধার

নাটোর প্রতিনিধি
|  ১৫ মে ২০১৯, ১২:০৫ | আপডেট : ১৫ মে ২০১৯, ১২:২৩
বাড়ির সামনে উৎসুক জনতার ভিড়, ছবি: আরটিভি অনলাইন
নাটোরের নলডাঙ্গা থেকে মা শারমিন বেগম ও দুই বছরের শিশুসন্তান আব্দুল্লাহর মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত শারমিন বেগম ও আব্দুল্লাহ ওই এলাকার মাহমুদুল হাসান মুন্নার স্ত্রী ও সন্তান।

whirpool
আজ বুধবার সকালে উপজেলার বাশিলা উত্তরপাড়া গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে গলায় ওড়না পেঁচানো অবস্থায় শারমিনের মরদেহ এবং শিশু আব্দুল্লাহর মরদেহটি বাড়ির পাশের পুকুর থেকে উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত রাতে নলডাঙ্গা উপজেলার বাশিলা উত্তরপাড়া গ্রামের প্রবাসী গার্মেন্টসকর্মী মাহমুদুল ইসলাম মুন্নার বাড়িতে হানা দেয় দুর্বৃত্তরা। তারা বাড়ির অন্য ঘরে বাইরে থেকে শিকল লাগিয়ে মুন্নার ঘরে ঢুকে তার স্ত্রী হালিমা আক্তার শারমিনকে শ্বাস রোধ করে হত্যার পর প্রতিবন্ধী শিশুসন্তান আব্দুল্লাহকে বাড়ির পাশের ডোবায় ফেলে দেয়। সকালে প্রতিবেশীদের সহায়তায় স্বজনরা ঘরে তাদের লাশ দেখে পুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ গিয়ে তাদের লাশ উদ্ধার করে। এসময় শারমিনের ঘরটি তছনছ অবস্থায় ছিল। কয়েকদিন ধরে এ এলাকায় অন্তত ৭টি বাড়িতে চুরির ঘটনা ঘটেছে বলে এলাকাবাসীর অভিযোগ।

নলডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শফিকুর রহমান আরটিভি অনলাইনকে বলেন, উপজেলার বাশিলা উত্তরপাড়া গ্রামের আমজাদ হোসেনের ছেলে মাহমুদুল হাসানের সাথে একই উপজেলার হরিদাখলসি গ্রামের শারমিন বেগমের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই মাহমুদুল ঢাকার একটি গার্মেন্টসে চাকরি করেন এবং সেখানেই বসবাস করেন। মাঝে মাঝে ছুটিতে বাড়িতে আসেন। কারা কি কারণে এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে তা মরদেহের ময়নাতদন্তসহ অনুসন্ধানে জানা যাবে।

পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়