গৃহবধূর শরীর অ্যাসিডে ঝলসে দিলো দুর্বৃত্ত

প্রকাশ | ১৩ মে ২০১৯, ১৩:৩১ | আপডেট: ১৩ মে ২০১৯, ১৪:১৫

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি

সাতক্ষীরা সদর উপজেলায় মনিরা সুলতানা নামের এক সন্তানের জননীকে অ্যাসিড দিয়ে ঝলসে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। রোববার রাত নয়টার দিকে উপজেলার আগরদাঁড়ি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। মনিরা সুলতানা ওই গ্রামের নূর মোহাম্মদের স্ত্রী।

চিকিৎসাধীন মনিরা সুলতানা আরটিভি অনলাইনকে জানান, ছয় বছর আগে কালেরডাঙি গ্রাম থেকে তারা আগরদাঁড়ি গ্রামের পূর্বপাড়ায় জমি কিনে বাড়ি বানিয়ে বনবাস শুরু করেন। প্রতিবেশী স্ত্রী শাহানারা ও তার ছেলে নির্মাণ শ্রমিক মাসুদ বিষয়টি ভালো চোখে দেখত না। তাদেরকে উচ্ছেদ করার জন্য বেশ কয়েকবার চেষ্টা করে।

তিনি আরও বলেন, রোববার সন্ধ্যায় স্বামী নূর মোহাম্মদ সৌদি আরব থেকে বাড়ি ফিরে আসেন। খাওয়া শেষে তিনি ছাদের ওপর ঘুমাচ্ছিলেন। রাত নয়টার দিকে বাথরুমে গোসল করার সময় শাহনারার ছেলে মাসুদ পেছনে অ্যাসিড ছুঁড়ে পালিয়ে যান। স্বজনরা তাকে গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালের সার্জারি কনসালটেন্ট ডা. শরিফুল ইসলাম জানান, মনিরার শরীর অ্যাসিড জাতীয় দাহ্য পদার্থ দিয়ে  ঝলসে দেওয়া হয়েছে। শরীরের ১০ শতাংশ পুড়ে গেছে। তবে ফরেনসিক পরীক্ষা ছাড়া বলা যাবে না, কি ধরনের দাহ্য পদার্থ ব্যবহার করা হয়েছে। তাকে ঢাকা অ্যাসিড সারভাইভাল ফাউন্ডেশনে ভর্তির জন্য সুপারিশ করা হয়েছে।

তবে অভিযোগ অস্বীকার করে নির্মাণ শ্রমিক মাসুদের মা শাহানারা খাতুন জানান, তার ছেলেকে অহেতুক ফাঁসানো হচ্ছে। তারা এ ধরনের ঘটনার সঙ্গে জড়িত নন।

সাতক্ষীরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, সোমবার সকাল ১১টা পর্যন্ত এ নিয়ে কেউ থানায় লিখিত অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জেবি/পি