নুসরাত হত্যা: ফেনীর এসপি প্রত্যাহার

প্রকাশ | ১২ মে ২০১৯, ১৯:২১ | আপডেট: ১২ মে ২০১৯, ২২:২৩

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
ফাইল ছবি

মাদরাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় গাফিলতির অভিযোগ পাওয়ায় ফেনীর পুলিশ সুপার এসএম জাহাঙ্গীর আলম সরকারকে প্রত্যাহার করে পুলিশ সদর দপ্তরে সংযুক্ত করা হয়েছে।

রোববার (১২ মে) বিকেলে পুলিশ সদর দপ্তরের এআইজি (মিডিয়া) সোহেল রানা বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘রোববার পুলিশ সুপার জাহাঙ্গীর আলম সরকারকে প্রত্যাহারের আদেশ দেওয়া হয়েছে। তাকে পুলিশ সদর দপ্তরে সংযুক্ত করা হয়েছে।’

পুলিশ সদর দপ্তর সূত্রে জানা যায়, গঠিত তদন্ত কমিটি নুসরাত হত্যার ঘটনায় পুলিশ সুপারের গাফিলতি প্রমাণ পেয়েছে। এরপর তাকে প্রত্যাহার করে অন্যত্র সংযুক্তির সুপারিশ করা হয়।

ওই সুপারিশে বলা হয়, যেসব গাফিলতির কারণে পুলিশ সুপারের কাছে ব্যাখ্যা চাওয়া হয়েছিল তার সন্তোষজনক জবাব পাওয়া যায়নি। তাই তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

এর আগে নুসরাত হত্যার ঘটনায় পুলিশের ভূমিকা নিয়ে তদন্ত শেষে পুলিশ সদর দপ্তরের তদন্ত দল ফেনীর পুলিশ সুপার, থানার ওসিসহ অন্তত চারজনের গাফিলতির প্রমাণ পাওয়ার কথা জানিয়ে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার সুপারিশ করেছিল।

সুপারিশ অনুযায়ী, গত ১০ মে ফেনীর সোনাগাজী থানার সাবেক ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোয়াজ্জেম হোসেনকে সাময়িক বরখাস্ত করে পুলিশ সদর দপ্তর। পুলিশ সদর দপ্তরের এক আদেশে ওসি মোয়াজ্জেমকে সাময়িক বরখাস্ত করে রংপুর রেঞ্জের ডিআইজি অফিসে সংযুক্ত করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ৬ এপ্রিল ফেনীর সোনাগাজীতে মাদরাসা শিক্ষার্থী নুসরাত জাহান রাফির গায়ে আগুন ধরিযে হত্যাচেষ্টা চালায় দুর্বৃত্তরা। এরপর ১০ এপ্রিল ঢাকা মেডিকেল কলেজের বার্ন ইউনিটে মারা যায় নুসরাত। পরে ঘটনা তদন্তে একটি উচ্চ পর্যায়ের কমিটি গঠন করে পুলিশ সদর দপ্তর।

পি