• ঢাকা সোমবার, ২০ মে ২০১৯, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

কোটালীপাড়ায় সাংবাদিকের উপর হামলা, আটক ১

গোপালগঞ্জ সংবাদদাতা
|  ০৭ মে ২০১৯, ০৮:৪৭ | আপডেট : ০৭ মে ২০১৯, ১৩:১২
কোটালীপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন আহত সাংবাদিক মিজানুর রহমান বুলু, ছবি: আরটিভি অনলাইন
আরটিভি অনলাইনের গোপালগঞ্জ সংবাদদাতা, দৈনিক কালের কণ্ঠ পত্রিকার কোটালীপাড়া প্রতিনিধি ও কোটালীপাড়া প্রেসক্লাবের সভাপতি মিজানুর রহমান বুলুর ওপর হামলা করেছে দুর্বৃত্তরা। সোমবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে কোটালীপাড়া উপজেলার কুরপালা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে কোটালীপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত অনামিকা ফকির নামে একজনকে আটক করেছে পুলিশ।

হাসপাতালে ভর্তি আহত সাংবাদিক মিজানুর রহমান বুলু জানান, মাগরিবের নামাজের পর কোটালীপাড়া উপজেলা সদরের ঘাঘর বাজারে মাদক সেবন করা নিয়ে কুরপালা গ্রামের সুলতান হোসেনের মাদকাসক্ত ছেলে কোটালীপাড়া উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান ডাবলুর সাথে কথা কাটাকাটি হয়। পরে রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলা সদরের ঘাঘর বাজার থেকে কুরপালা গ্রামের নিজ বাড়িতে যাওয়ার পথে মেহেদী হাসান ডাবলু ও তার ভাই অনামিকা ফকির কুরপালা গ্রামে নিজ বাড়ির কাছে একা পেয়ে তার ওপর মোটরসাইকেলের চেইন দিয়ে এলাপাতাড়ি আঘাত করে মারাত্মক আহত করেন।

এসময় মিজানের ডান হাত ও শরীরের বিভিন্ন স্থান ফুলে যায়। পিটিয়ে মারাত্মকভাবে আহত করার পর তারা গলায় চেইন দিয়ে প্যাঁচ কষে তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যার চেষ্টা করেন। এসময় মিজানের চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে তারা পালিয়ে যান এবং আহত মিজানকে উদ্ধার করে কোটালীপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। পরে অভিযুক্তরা মিজানের বাড়িতে গিয়ে ঘরবাড়ি জ্বালিয়ে দেয়ার হুমকিও দেন।

কোটালীপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কম‌প্লে‌ক্সের চিকিৎসক প্রেমানন্দ মণ্ডল বলেন, “তার হাত ও গলায় চেইনের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তাকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।”
এ বিষয়ে ডাবলুর সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করলেও তার মোবাইল ফোন বন্ধ থাকায় বক্তব্য পাওয়া যায়নি।
এ ব্যাপারে কোটালীপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ কামরুল ফারুক ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে আরটিভি অনলাইনকে বলেন, এ ঘটনার সাথে জড়িত অনামিকা নামের একজনকে আটক করা হয়েছে। ডাবলুর নামে একটি মাদক মামলা রয়েছে। সাংবাদিককে মারধরের সঙ্গে জড়িতদের বিরু‌দ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হ‌বে।

এ ঘটনায় গোপালগঞ্জ জেলা রিপোর্টার্স ফোরাম, গোপালগঞ্জ টিভি জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন, কোটালীপাড়া প্রেসক্লাব, কাশিয়ানী প্রেস ক্লাব এবং গোপালগঞ্জ জেলায় কর্মরত সাংবাদিকরা নিন্দা জানিয়ে অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারের দাবি করেছেন।

পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়