• ঢাকা মঙ্গলবার, ২১ মে ২০১৯, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

চট্টগ্রামে পরিবহন ধর্মঘট প্রত্যাহার

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট, চট্টগ্রাম
|  ২৫ এপ্রিল ২০১৯, ১২:১৯ | আপডেট : ২৫ এপ্রিল ২০১৯, ১২:২৯
পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) সদস্য পরিচয়ে বাস থেকে চালককে নামিয়ে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগে টানা ৪৮ ঘণ্টার পরিবহন ধর্মঘট প্রত্যাহার করেছে চট্টগ্রামের শ্রমিক সংগঠনগুলো।

whirpool
দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়াসহ প্রশাসনের বিভিন্ন আশ্বাসের পরিপ্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার বেলা ১২টা থেকে ধর্মঘট প্রত্যাহার করা হয়। 

এর আগে ২৩ এপ্রিল সন্ধ্যায় পূর্বাঞ্চলীয় সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন এবং চট্টগ্রাম জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের যৌথ সভা শেষে ৪৮ ঘণ্টার পরিবহন ধর্মঘট ঘোষণা করে।

বেলা ১১টায় পরিবহন শ্রমিক সংগঠনগুলোর যৌথ বৈঠক করে। সেখান থেকেই ধর্মঘট প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নেয়া হয় বলে আরটিভি অনলাইনকে জানিয়েছেন পরিবহন শ্রমিক নেতা হাজী রহুল আমিন। 

হাজী রহুল আমিন বলেন, প্রশাসনের আশ্বাসের ওপর আস্থা রেখে সকল শ্রমিক সংগঠনের সিদ্ধান্তে ধর্মঘট প্রত্যাহার করা হয়েছে। জড়িত ব্যক্তিদের শনাক্ত করে বিচারের আওতায় আনতে হবে। নিহত ব্যক্তির পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

গতকাল বুধবার বিকেল ৫টায় চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক মো. ইলিয়াস হোসেন পূর্বাঞ্চলীয় (চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগ) এবং জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেছিলেন। বৈঠকে তদন্তের মাধ্যমে দোষীদের চিহ্নিত করে গ্রেপ্তারসহ বিভিন্ন বিষয়ে আশ্বাস দেয়া হয়।

পরিবহন সংগঠনের নেতারা অভিযোগ করে জানান, সোমবার রাত ৮টার দিকে কক্সবাজার থেকে চট্টগ্রামের পথে রওনা দেয় শ্যামলী পরিবহনের একটি বাস। পথে পটিয়া ও কর্ণফুলী উপজেলা সংলগ্ন শিকলবাহা সেতু এলাকায় বাসটিকে গোয়েন্দা পুলিশ পরিচয়ে থামান অন্তত ৭ জন ব্যক্তি। এরপর তারা বাসে উঠে তল্লাশি শুরু করেন।

এক পর্যায়ে বাসের চালক জালালের হাতে হাতকড়া পরিয়ে ইয়াবা বের করে দিতে বলেন তারা। ইয়াবা নেই বলে জানালে চালককে লাঠি দিয়ে পেটাতে শুরু করেন গোয়েন্দা পুলিশ পরিচয় দেয়া ব্যক্তিরা। এমনকি রাস্তায় ফেলে লাথিও মারেন। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় চালককে বাসের ভেতর ফেলে চলে যায় তারা। এরপর রাত আড়াইটার দিকে চালক জালালকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এমসি/এসএস

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়