logo
  • ঢাকা বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০১৯, ৩ শ্রাবণ ১৪২৬

এবার আরেকটি স্কুলের ছাদ ভাঙল

বরগুনা প্রতিনিধি
|  ১১ এপ্রিল ২০১৯, ০৯:৩৬ | আপডেট : ১১ এপ্রিল ২০১৯, ১০:৫৯
বরগুনার আমতলী উপজেলার হলদিয়া ইউনিয়নের দক্ষিণ তক্তাবুনিয়া জগৎচাদ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের একটি শ্রেণিকক্ষের ছাদের একাংশ ও ভীম ভেঙে পড়েছে। 

বুধবার সকাল ৯টার সময় ক্লাস চলাকালে এ ঘটনাটি ঘটে। তবে অল্পের জন্য বেঁচে গেছেন শিক্ষার্থীরা। 

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. শহিদুল্লাহ জানান, ৪র্থ শ্রেণির কক্ষে ছাদের একাংশ ও ভীম ধসের ঘটনা ঘটছে।

জানা যায়, সকালে ওই শ্রেণিতে প্রাক প্রাথমিকের শিক্ষার্থীদের পাঠদান চলছিল। এমন সময় ভীম ধ্বসে পড়তে দেখে ছাত্রছাত্রী ও শিক্ষক দৌড়ে শ্রেণিকক্ষ থেকে বের হয়ে যান। 

চার কক্ষের স্কুলটির একটি অফিস ও অপর তিনটি শ্রেণি কক্ষ হিসেবে ব্যবহার করা হয়। প্রতিটি কক্ষের ভীমে ফাটল ধরেছে। ছাদ ধ্বসে পলেস্তারা খসে পড়ছে। এ অবস্থায় ছাত্র ছাত্রীদের ঠিকমত পাঠ দান করানো যাচ্ছে না। 

ভবনের ছাদ ও দেয়াল থেকে পলেস্তারা ধ্বসে পড়ায় ও পানি চুইয়ে পড়ায় শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের ভয় ও আতংকের মধ্যে ক্লাস করতে হয়। 

বিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, ২০০১-০২ সালে এলজিইডির অর্থায়নে প্রায় ৮ লাখ টাকা ব্যয়ে স্কুল ভবনটি নির্মাণ করা হয়। ভবন নির্মাণের দীর্ঘদিন অতিবাহিত হলেও কোনও সংস্কার না করায় ভবনটি ব্যবহারের অযোগ্য হয়ে পড়েছে। বর্তমানে শিক্ষকরা জরাজীর্ণ ভবনে বসে ক্লাস ও পরীক্ষা কার্যক্রম চালাচ্ছে। বর্তমানে বিদ্যালয়টিতে প্রায় দেড় শতাধিক শিক্ষার্থী রয়েছে। বৃষ্টি এলে শিক্ষার্থীরা বইপত্রসহ দৌড়ে আশপাশের বাড়ির বারান্দায় আশ্রয় নেয়।

স্কুলের ৫ম শ্রেণির শিক্ষার্থী অনিক, তুষার, ও চাঁদনী জানিয়েছেন, তাদের কষ্টের আর শেষ নেই। তারা বৃষ্টিতে ভিজে আর রোদে পুড়ে লেখাপড়া করে।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. শহিদুল্লাহ আরটিভি অনলাইনকে জানান, বিদ্যালয় ভবনটি স্থাপনের পর কোনও সংস্কার না করায় বর্তমানে ব্যবহারের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। ভবনটি সংস্কারের জন্য ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট অনেক বার আবেদন করা হয়েছে কিন্তু কোনও কাজ হচ্ছে না। 

আমতলী উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. মজিবুর রহমান জানান বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়ে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া হবে। 
 
আমতলী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. সরোয়ার হোসেন জানান, ঝুঁকিপূর্ণ শ্রেণিকক্ষে পাঠদান বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

এর আগে গত শনিবার বরগুনার তালতলী উপজেলার ছোট বগী পিকে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ছাদ ভেঙে পড়ে তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী মানসুরা (৮) নিহত হয়। আহত হয় আরও তিন শিক্ষার্থী। পরে উপজেলা প্রশাসন বিদ্যালয়টি পরিত্যক্ত ঘোষণা করে।

এসএস

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়