logo
  • ঢাকা বুধবার, ১৭ জুলাই ২০১৯, ২ শ্রাবণ ১৪২৬

সাবেক এমপিসহ ১৩ জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা

গাইবান্ধা প্রতিনিধি
|  ০৮ এপ্রিল ২০১৯, ২১:৫৯
গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার সাবেক সহকারী কমিশনার (ভূমি) অবিদীয় মারডীকে (৩২) হত্যার অভিযোগে গোবিন্দগঞ্জের সাবেক এমপি ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল কালাম আজাদসহ ১৩ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। 
 
সোমবার দুপুরে গোবিন্দগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে নিহতের বড়ভাই দিনাজপুর জেলার ঘোড়াঘাট উপজেলার ওসমানপুর মরিয়ম মিশনের ফাদার স্যামসন মারডী বাদী হয়ে এই অভিযোগ দায়ের করেন। এছাড়াও তৎকালীন পুলিশের এসপি, বিআরটিএ মহাপরিচালক, থানার ওসি ও চিকিৎসকসহ মোট ১৩ জনকে আসামী করা হয়। 
 
আদালতের বিচারক পার্থ ভদ্র অভিযোগ আংশিক শুনানি শেষে আগামী ১২ জুন আবারও শুনানির দিন ধার্য করেছেন।
 
জানা যায়, ২০১৪ সালে নওগাঁ জেলার ধামইরহাট বেনীদুয়ার মিশন পাড়ার প্রয়াত যোসেফ মারডীর ছেলে অবিদীয় মারডী গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) দায়িত্ব পালন করেন। একই বছর গত ৯ ও ১০ জানুয়ারি নওগাঁর ধামইরহাটে নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতা হয়। এতে সহকারী কমিশনার (ভূমি) অবিদিয় মারডীর বাড়ি অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। তিনি ১১ জানুয়ারি নিজ বাড়িতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা দেখতে যান। ওইদিন বাড়ি থেকে কর্মস্থলে ফেরার পথে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার ফাসিতলা এলাকায় দুর্বৃত্তরা হামলা চালিয়ে তাকে হত্যা করে। পরে বিষয়টি থানায় সড়ক দুর্ঘটনা উল্লেখ করে থানা পুলিশ মামলা দায়ের করে। পরবর্তীতে নিহতের বড় ভাই ফাদার স্যামসন মারডী পরিকল্পিতভাবে অবিদীয় মারডীকে হত্যার অভিযোগ এনে ১৩ মার্চ গোবিন্দগঞ্জ থানায় অভিযোগ দায়ের করলে পুলিশ তা সাধারণ ডায়েরি (জিডি) হিসেবে লিপিবদ্ধ করে। পরে পুলিশ বাদী হয়ে মামলার চার্জশিট দাখিল করে আদালতে।
 
আদালতে দায়ের করা মামলার বাদী পক্ষের কৌশলী সহকারী পাবলিক প্রসিকিউটর মিজানুর রহমান বলেন, অবিদীয় মারডী নিহতের ঘটনায় পুলিশ চার্জশিট দাখিল করে। ওই চার্জশিটের প্রতি বাদীর আস্থা না থাকায় রোববার আদালতে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। আদালত উভয় পক্ষে শুনানি শেষে আগামী ১২ জুন শুনানির দিন ধার্য করেছেন। ওই দিন শুনানি শেষে অভিযোগটি আদালত আমলে নিতে পারেন অথবা খারিজ করে দিতে পারেন।
 
এ ব্যাপারে মুঠোফোনে সাবেক এমপি ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল কালাম আজাদ বলেন, পাঁচ বছর আগে সড়ক দুর্ঘটনায় সহকারী কমিশনার (ভূমি) অবিদীয় মারডী নিহত হয়েছিলেন। সেসময় তার ময়নাতদন্তও হয়েছে। এ ব্যাপারে একটি মামলা হয়েছিল। আদালতে চার্জশিট দাখিল করেছে পুলিশ। 
 
তিনি বলেন, মামলাটি সম্ভবত সাক্ষীর পর্যায়ে আছে। এতদিন পরে আমাকে জড়িয়ে মামলা করায় আমি হতবাক হয়েছি। মামলাটি সম্পূর্ণ ষড়যন্ত্রমূলকভাবে করা হয়েছে। আমাকে সামাজিক ও রাজনৈতিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন করতে প্রতিপক্ষের ইন্ধনে এ ধরনের মামলার উদ্ভব হয়েছে।
 
এসএস
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়