• ঢাকা মঙ্গলবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ৭ ফাল্গুন ১৪২৫

চোখ হারাতে বসা সেই তরুণীর উপর ৩ হামলাকারী রিমান্ডে

অনলাইন ডেস্ক
|  ২৭ জানুয়ারি ২০১৯, ১৫:১৩ | আপডেট : ২৮ জানুয়ারি ২০১৯, ১৫:১৬
ভোলা সরকারি কলেজের মৃত্তিকা বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী জান্নাতুল ফেরদৌস মিশুর (১৯) উপর হামলাকারীদের মধ্য থেকে গ্রেপ্তার হওয়া ৩ আসামীকে ২ দিনের রিমান্ড দিয়েছেন আদালত।

রোববার সকালে ভোলা চরফ্যাশনের অতিরিক্ত জেলা জজ কোর্টে আসামিদের হাজির করা হলে আদালত মামলার ১ নম্বর আসামি মিজান (২০), ২ নম্বর আসামি আক্তার (২৩) ও ৫ নম্বর আসামি স্বপনকে (২৫) দুই দিন করে রিমান্ডে নেয়ার আদেশ দেন।

গত মঙ্গলবার (২২ জানুয়ারি) ভোলা সরকারি কলেজের মৃত্তিকা বিভাগের শিক্ষা সফরের গাড়িতে দুর্বৃত্তরা হামলা করলে প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী জান্নাতুল ফেরদৌস মিশুর চোখ মারাত্মকভাবে আঘাতপ্রাপ্ত হয়। পরদিন বুধবার দক্ষিণ আইচা থানায় বিনাদোষে শিক্ষা সফরের গাড়িতে হামলার বিচার চেয়ে ১২ জনের নাম উল্লেখ করে এবং আরও অজ্ঞাত ১৫ জনের নামে মামলা করেন শিক্ষার্থীরা।

ওই দিনই দিবাগত রাতে জেলা পুলিশ সুপার মোকতার হোসেনের তত্ত্বাবধানে গোয়েন্দা পুলিশ ও চরফ্যাশন উপজেলার দক্ষিণ আইচা থানার পুলিশ যৌথ অভিযান চালিয়ে আসামিদের গ্রেপ্তার করে। রোববার সকালে তাদেরকে আদালতে হাজির করা হলে শুনানি শেষে রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

মৃত্তিকা বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী ও মিশুর সহপাঠীদের অভিযোগ, মোট ২৭ জনের নামে মামলা হলেও পুলিশ মাত্র তিন জনকে গ্রেপ্তার করেছে। এ ক্ষেত্রে পুলিশের দায়িত্বের অবহেলার অভিযোগ তুলেছেন তারা। দ্রুততম সময়ের মধ্যে সব আসামির গ্রেপ্তারের দাবি জানান শিক্ষার্থীরা।

দক্ষিণ আইচা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাসুম তালুকদার জানান, এই মামলায় অভিযুক্ত বাকি আসামীরা পলাতক রয়েছেন। তবে তাদের গ্রেপ্তারের অভিযান অব্যাহত আছে। যত দ্রুত সম্ভব আসামীদের আইনের আওতায় আনা হবে।

গেল ২২ জানুয়ারি দুই দিনের শিক্ষা সফরে বাসযোগে চরফ্যাশনের চর কুকরি মুকরির পথে রওনা দেন ভোলা সরকারি কলেজের মৃত্তিকা বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীরা। বাসটি দক্ষিণ আইচায় পৌঁছালে স্থানীয় জামাল মেম্বারের লোকজন অতর্কিতভাবে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা করে বলে অভিযোগ ওঠে। শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, তাদের কাছ থেকে নগদ টাকা, মোবাইল ফোন, মেয়েদের স্বর্ণালঙ্কার ছিনিয়ে নেয়া হয়। পরে স্থানীয় পুলিশ বাসটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায় এবং আহতদের স্থানীয় গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রে চিকিৎসার ব্যবস্থা করে।

এ ঘটনায় জান্নাতুল ফেরদৌস মিশুর চোখ মারাত্মকভাবে আঘাতপ্রাপ্ত হয়। আঘাত গুরুতর হওয়ায় তাকে বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। চিকিৎসকরা জানান, মিশুর বাম চোখের দৃষ্টি ফিরে পাওয়া নিয়ে শঙ্কা রয়েছে।

এসএস

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়