DMCA.com Protection Status
  • ঢাকা বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০১৯, ১১ বৈশাখ ১৪২৬

স্ত্রী হত্যায় স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি
|  ১০ জানুয়ারি ২০১৯, ১৭:৪৮ | আপডেট : ১০ জানুয়ারি ২০১৯, ১৭:৫৮
সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলায় গৃহবধূ রোমেছা খাতুন হত্যা মামলায় স্বামী আব্দুস সবুর মোল্লাকে (৫২) মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে সাতক্ষীরার জেলা দায়রা ও জজ আদালতের (নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইব্যুনাল) বিচারক সৈয়দ সাদিকুল ইসলাম তালুকদার এ রায় দেন। আসামি আব্দুস সবুর মোল্লা পলাতক রয়েছেন।

নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইব্যুনাল আদালত সূত্র জানায়, কলারোয়া উপজেলার কুমারনাল গ্রামের মৃত মেহের আলি সরদারের মেয়ে রোমেছা খাতুনের সঙ্গে একই উপজেলার মুরারিকাটি গ্রামের আবুল কাসেম মোল্লার ছেলে আব্দুস সবুর মোল্লার বিয়ে হয়।

বিয়ের পরেই রোমেছা খাতুন জানতে পারেন তার স্বামীর আরেকজন স্ত্রী রয়েছে। এসময় আব্দুস সবুর প্রথম স্ত্রীকে রেখে রোমেছাকে নিয়ে মুরারিকাটি গ্রামে বাস করতেন।

সংসারে সচ্ছলতা না থাকার কারণে রোমেছা এলজিইডির একটি প্রকল্পে শ্রমিকের কাজ করতেন। কাজের টাকা নিয়ে প্রায়ই স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া হতো। এরই জের ধরে ২০১২ সালের ২৪ আগস্ট রোমেছাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে সবুর মোল্লা। এরপর এলাকাবাসী তাকে আটক করে পুলিশে দেয়।

এই ঘটনায় নিহতের ভাই জালাল উদ্দিন বাদী হয়ে কলারোয়া থানায় সবুর মোল্লাকে একমাত্র আসামি করে একটি হত্যা মামলা করেন। পরদিন ২৫ আগস্ট আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন আসামি সবুর।

এরপর দীর্ঘ তদন্ত শেষে আসামির বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন এই মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও কলারোয়া থানার তৎকালীন এসআই ফকির আজিজুর রহমান। একপর্যায়ে সবুর মোল্লা উচ্চ আদালত থেকে জামিন পান।

নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইব্যুনাল আদালতের সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) অ্যাডভোকেট তপন কুমার দাস জানান, দীর্ঘ শুনানি শেষে বিচারক আসামি সবুরের অনুপস্থিতিতে ফাঁসির দণ্ডাদেশ দেন।

আরো পড়ুন:

জেবি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়