• ঢাকা মঙ্গলবার, ২০ নভেম্বর ২০১৮, ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

সব হারিয়ে এখন নিঃস্ব অনেকে

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ০৫ নভেম্বর ২০১৮, ০৮:৪৭ | আপডেট : ০৫ নভেম্বর ২০১৮, ১১:০৫
খুলনার আতাই নদীর ভাঙনে তেরখাদা উপজেলার প্রায় শতাধিক ঘর-বাড়ি বিলিন হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্তদের অনেকে বসবাস করছেন খোলা আকাশের নিচে। ভাঙনে সেনের বাজার-কালিয়া সড়কের আধা কিলোমিটার বিলিন হওয়ায় বন্ধ আছে যান চলাচল। এতে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে যাত্রী ও পথচারীদের। ভাঙন রোধে ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানিয়েছে পানি উন্নয়ন বোর্ড। 

খুলনা শহর থেকে প্রায় ৩ কিলোমিটার দূরে তেরখাদা উপজেলার মধুপুর ইউনিয়ন। নদীর ভাঙনে মধুপুরের পারহাজী গ্রামের ৫ হাজার লোক ঘর-বাড়ি হারিয়ে নিঃস্ব হয়েছে। সব হারিয়ে এখন অনেকেই খোলা আকাশকে মাথা গোঁজার ঠাই করে নিয়েছেন।  কেউবা না খেয়ে দিন পার করছেন। বাড়িঘর বিলীন হওয়ায় স্কুলগামী শিক্ষার্থীদের অনেকেই বই হারিয়েছেন। পারিবারিক গুরুত্বপূর্ণ জিনিস ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্র হারিয়ে অনেকেই নিঃস্ব হয়েছেন। স্থানীয় সেনের বাজার-কালিয়া সড়কের প্রায় আধা কিলোমিটার এলাকাও কেড়ে নিয়েছে নদী। যান চলাচল বন্ধ থাকায় দুর্ভোগে পড়েছেন হাজারো মানুষ।  

এ বিষয়ে পানি উন্নয়ন বোর্ডের (তেরখাদা, খুলনা) উপসহকারী প্রকৌশলী আব্দুস সোবহান হাওলাদার বলেন, বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের পক্ষ থেকে ২০ লাখ টাকা বরাদ্দ হয়েছে। বাঁধ ডাম্পিংয়ের কাজ দ্রুত গতিতে চলছে। আশা করি অল্পদিনেই ভাঙন রোধ হবে। 

তবে দুর্দিনে আশ্বাস কিংবা প্রতিশ্রুতিই নয়, ভাঙন প্রতিরোধে দ্রুত কার্যকর ব্যবস্থা চান ক্ষতিগ্রস্তরা। 

আরও পড়ুন  :

জিএ/এসএস

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়