logo
  • ঢাকা সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৮ আশ্বিন ১৪২৬

বল ভেবে বোমা কুড়িয়ে ক্ষতবিক্ষত শিশু

মেহেরপুর প্রতিনিধি
|  ০৫ এপ্রিল ২০১৮, ১৫:৩৫
বল ভেবে বোমা কুড়িয়ে বাড়িতে নিয়ে আসার পর বিস্ফোরণে মেহেরপুরের গাংনী উপজেলায় এক শিশু গুরুতর আহত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার সাহারবাটি গ্রামে শিশুটির নানাবাড়ীতে এ ঘটনা ঘটে।

আহত শিশুর নাম সুমন আলী (১১)। সে ওই গ্রামের মাঠপাড়ার স্বামী পরিত্যক্তা দিনমজুর জরিনা খাতুনের ছেলে।

জানা গেছে, সুমন বাড়ির পাশে জনৈক ইব্রাহিম হোসেনের বাগানে তাল কুড়াতে যায়। সেখান থেকে একটি তাল ও টেনিস বল ভেবে দুটি বোমা কুড়িয়ে বাড়িতে নিয়ে আসে।

পরে খেলতে গিয়ে একটি বোমা বিকট শব্দে বিস্ফোরিত হয়। এতে সুমনের শরীরের বিভিন্ন অংশ ক্ষতবিক্ষত হয়। পরে স্থানীয়রা দ্রুত তাকে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতাল নিয়ে যায়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে সুমনকে চিকিৎসকরা কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়।

মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. এহসানুল কবির  আরটিভি অনলাইনকে বলেন, আহত শিশুটির শরীরের বিভিন্ন জায়গায় বোমার স্পিন্টার লেগেছে।

এছাড়াও হাতের কব্জিতে গুরুতর ক্ষত থাকায় তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

সাহারবাটি ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম ফারুক আরটিভি অনলাইনকে বলেন, স্বামী পরিত্যক্তা দিনমজুর জরিনা খাতুন শিশু সন্তান সুমনকে নিয়ে বাবার বাড়িতে বসবাস করেন।

তার পক্ষে ছেলের চিকিৎসা করানো সম্ভব নয়। আমরা গ্রামের পক্ষ থেকে তাকে হাসপাতালে পাঠিয়েছি। তিনি বোমা রাখার সঙ্গে জড়িতদের খুঁজে আইনের আওতায় আনার দাবি জানান।

গাংনী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হরেন্দ্র নাথ সরকার আরটিভি অনলাইনকে বলেন, ঘটনাস্থল থেকে অবিস্ফোরিত একটি বোমা উদ্ধার করা হয়েছে।

ধারণা করা হচ্ছে ওই বাগানে বেশ কিছুদিন আগে মাটির নিচে বোমা দুটি রাখে দুর্বৃত্তরা। কয়েকদিন আগের বৃষ্টিতে বোমা দুটির ওপর থেকে মাটি সরে গেছে।

ওসি আরও জানান,  এই ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনা হবে।

জেবি/জেএইচ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়