Mir cement
logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

মুদি দোকানিকে হত্যার দায়ে ৮ জনের যাবজ্জীবন

মুদির দোকানিকে হত্যার দায়ে ৮ জনের যাবজ্জীবন
মুদির দোকানিকে হত্যার দায়ে ৮ জনের যাবজ্জীবন

কুড়িগ্রামের চিলমারীতে নূরুন্নবী মিয়া নামে এক মুদি দোকানিকে হত্যার দায়ে ৮ আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন জেলা জজ আদালত।

সোমবার (৯ মে) দুপুরে সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ মো. আব্দুল মান্নান আসামিদের উপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করেন। মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী এস এম আব্রাহাম লিংকন ও আসামিপক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট আমজাদ হোসেন ও সামসুজ্জোহা রুবেল।

যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্তরা হলেন, চিলমারী উপজেলার রানীগঞ্জ ইউনিয়নের কাচকোল এলাকার রাশেদ (৪০), মকবুল হোসেন (৫৪) ও তসলিম উদ্দিন (৫৬), আব্দুল কাদের (৪৩), মিন্টু (৪১), মোসলেম উদ্দিন (৪৪), মোনাল মিয়া ওরফে মোন্নাফ (৪৪) এবং ওসমান মিয়ার ছেলে নুরু মিয়া (৫০)।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, ২০০৪ সালের ২২ জানুয়ারি রাতে মুদি দোকানি নূরুন্নবীর সঙ্গে তার দোকানের ভেতর ঘুমিয়েছিল আসামি রাশেদ। পূর্বশত্রুতার জেরে সেদিন রাতে তাকে পরিকল্পিতভাবে দোকানে ঘুমন্ত অবস্থায় গলায় মাফলার পেঁচিয়ে হত্যা করে রাশেদ ও তার সহযোগী অন্য আসামিরা। পরদিন সকালে ভাই আশরাফুল ইসলাম দোকানে গিয়ে নূরুন্নবীর মরদেহ দেখে পুলিশে খবর দিলে পুলিশ এসে তার মরদেহ উদ্ধার করে। এরপর এ ঘটনায় নিহতের বাবা মোখলেছুর রহমান বাদী হয়ে পাঁচ জনের নাম উল্লেখ করে চিলমারী থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

মামলায় ৯ জনের সংশ্লিষ্টতা পাওয়ার অভিযোগের পর এক আসামির মারা গেলে তাকে এ মামলা থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়। দীর্ঘ শুনানি শেষে আসামিদের বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় সেই ৮ আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়াও কারাদণ্ডের পাশাপাশি ১০ হাজার টাকা করে অর্থদণ্ড অনাদায়ে ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

মামলার রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবি অ্যাডভোকেট এস.এম আব্রাহাম লিংকন পিপি বলেন, এতে সত্য উন্মোচিত হয়েছে। আদালত যে দৃষ্টান্ত স্থাপন করল তাতে এমন অন্যায় কাজ করতে মানুষ দ্বিতীয়বার চিন্তা করবে।

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS