Mir cement
logo
  • ঢাকা শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

এক জালে ধরা পড়ল বিরল প্রজাতির ৭৫৫ কেজি মাছ

এক জালে ধরা পড়ল বিরল প্রজাতির ৭৫৫ কেজি মাছ
মাইট্যা বা সুরমা মাছ

কক্সবাজার টেকনাফে এক জেলের জালে ধরা পড়েছে ৭৫৫ কেজি ওজনের ২১০টি মাইট্যা বা সুরমা মাছ।

গতকাল সোমবার (২৪ জানুয়ারি) বিকেলের দিকে সাগর থেকে সাবরাং ইউনিয়নের শাহ পরীর দ্বীপ জেটি ঘাট ফিশারিজ বাজারে তোলা হয় বিভিন্ন আকারের ২১০টি মাছ। এ মাছগুলো শাহ পরীর দ্বীপ এলাকার সুলতান আহাম্মদের মালিকানাধীন ট্রলারে ধরা পড়ে।

জানা গেছে, সুলতান আহমদের মালিকানাধীন ট্রলার প্রতিদিনের মতো ভোররাতে মাছ শিকারে গিয়ে সাগরে জাল ফেলে। দুপুরে জাল তুলে দেখতে পান মাইট্যা মাছে ভরপুর।

বড় ৪০টি প্রতিটি মাছের ওজন সাড়ে ৯ কেজি থেকে ১৫ কেজি। বাকি মাছ গুলোর ওজন সাড়ে ৩ কেজি থেকে সাড়ে ৬ কেজি। মোট মাছের ওজন হয়েছে ৭৫৫ কেজি। ট্রলারে মালিক সুলতান আহাম্মেদ মাছগুলো ৩ লাখ ৯০ হাজার টাকায় বিক্রি করে দেন।

একাধিক মৎস্য শিকারি আরটিভি নিউজকে জানিয়েছেন, বর্তমানে পর্যটন মৌসুম চলছে । দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে পর্যটকেরা কক্সবাজার ও সেন্টমার্টিনে বেড়াতে আসছেন। খাবারের হোটেল-রেস্তোরাঁ গুলোতে এ সব মাছের প্রচুর চাহিদা রয়েছে। বিভিন্ন হোটেল-রেস্তোরাঁ কর্তৃপক্ষ মাছের জন্য আগাম বুকিং দিয়েছে। মাছগুলো বরফ দিয়ে প্যাকেটিং করে কক্সবাজার ও সেন্টমার্টিনে পাঠানো হবে। চট্টগ্রামের স্থানীয় লোকজন এই মাছকে সুরমা (মাইট্যা) ও চাপা সুরমা মাছ নামে চেনে।

টেকনাফ উপজেলার জ্যেষ্ঠ মৎস্য কর্মকর্তা মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন আরটিভি নিউজকে বলেন, শাহ পরীর দ্বীপে মাইট্যা ও চাপা (সুরমা) মাছ আটকা পড়ার খবর শুনেছি। এই মাইট্যা মাছ খেতে খুব সুস্বাদু। মাইট্যা মাছ এর বৈজ্ঞানিক নাম হল (Scomberomorus guttatus)। সরকার মাছের প্রজনন ও ডিম ছাড়ার সময়ে ৬৫ দিন সাগরে সব ধরণের মাছ ধরা বন্ধ ছিলো গত ৩ বছর। তিনি মনে করেন তারই সুফল পাওয়া যাচ্ছে এখন।

এমআই

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS