Mir cement
logo
  • ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারি ২০২২, ১৩ মাঘ ১৪২৮
discover

‘হাতি কাঁধে নিয়ে দৌড় দেব, কিন্তু নৌকার ওপর উঠতে দেব না’

‘হাতি কাঁধে নিয়ে দৌড় দেব, কিন্তু নৌকার ওপর উঠতে দেবো না’

নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য এ কে এম শামীম ওসমান বলেছেন, আমার মনে হয় না নারায়ণগঞ্জে বিএনপি-জামায়াতের নৌকা ডুবানোর ক্ষমতা আছে, যে নৌকাকে ডুবায়ে দেবে।

আজ সোমবার (১০ জানুয়ারি) দুপুরে নারায়ণগঞ্জের চাষারায় এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

শামীম ওসমান বলেন, আমার মনে হয় না নারায়ণগঞ্জে বিএনপি-জামায়াতের ওই ক্ষমতা আছে যে নৌকাকে ডুবায়ে দেবে। হাতি সাইজে বড় হতে পারে, আমরা হাতি কাঁধে নিয়ে দৌড় দেব, কিন্তু নৌকার ওপর উঠতে দেব না।

তিনি বলেন, নারায়ণগঞ্জ নৌকার ঘাঁটি, শেখ হাসিনার ঘাঁটি। এখানে অন্য কোনো খেলা খেলার চেষ্টা করবেন না। কে প্রার্থী, হু কেয়ারস? প্রার্থী আম গাছ হোক, আর কলাগাছ হোক। সবসময় নৌকার প্রতি সাপোর্ট।

তিনি আরও বলেন, নির্বাচন এলেই যেন একটা সমস্যা হয়ে যায়। এখন আমার অবস্থা গরিবের বউ যেন সবার ভাবি। এও বলে আমি উনার, উনিও বলে আমি উনার। দুজনে দুজনকে দিয়ে দিতে চায়।

শামীম ওসমান বলেন, কোনো দল-মতের কারণে আমি রাজনীতিতে আসিনি। জাতির পিতার হত্যাকারীদের বিচারের দাবিতে রাজনীতি করতে এসেছি। বঙ্গবন্ধুকে ভালোবেসে রাজনীতি করতে এসেছি। আমি নৌকার বিরুদ্ধে না, নৌকা প্রতীক আমাদের রক্ত দিয়ে কেনা প্রতীক। আজ থেকে নৌকার হয়ে মাঠে নামলাম।

তিনি বলেন, সামনে কঠিন পরীক্ষা দিতে হবে। ছাত্রলীগের মনে কষ্ট দিয়েন না। দুঃসময়ে তারাই এগিয়ে এসেছিল। নির্বাচন ধমক কিংবা একে অন্যকে দোষারোপ করে হয় না। সব রাগ অভিমান ছেড়ে দিয়ে কাজ করতে হবে। এই ঘাঁটি নৌকার, এ মাটি আওয়ামী লীগের। জয় আমাদের হবেই।

তিনি আরও বলেন, আমরা যখন জাগবো অন্যরা তখন ঘুমাবে। আমাদের রক্ত মুক্তিযোদ্ধার রক্ত। বঙ্গবন্ধু আমাদের শেষ ঠিকানা। আমি কারও সামনে মাথা নত করি না। আমি নিজেই ঝড়, এই ঝড় কারও সামনে মাথা নোয়ায় না।

আপনাকে গডফাদার কেন বলা হয়, এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, কারও ইচ্ছা হলে গডফাদার বলে, বলতে পারে। কেউ ব্রাদার বলতে চাইলে বলতে পারেন। আবার ফাদার বললে বলতে পারেন, তবে মাদার বলেন না। তবে কে কী বলল আমি কেয়ার করি না। কেউ কিছু বলে শান্তি পেলে বলুক, বলতে দেন। আমি নীলকণ্ঠের মতো, সব হজম করতে পারব।

এসএস/টিআই

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS